Friday , April 19 2024
Breaking News
Home / National / যুক্তরাজ্য ও নিউইয়র্কে সাবেক ভূমিমন্ত্রীর সম্পদের পাহাড়

যুক্তরাজ্য ও নিউইয়র্কে সাবেক ভূমিমন্ত্রীর সম্পদের পাহাড়

রোববার ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। যুক্তরাজ্যের কোম্পানি হাউস অ্যাকাউন্ট, বন্ধকী চার্জ এবং এইচএম ল্যান্ড রেজিস্ট্রি লেনদেন সংক্রান্ত প্রাপ্ত তথ্য বিশ্লেষণ করে সাইফুজ্জামান চৌধুরীর যুক্তরাজ্যে সম্পদের ওপর এই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ব্লুমবার্গ।
যুক্তরাজ্যে তার সম্পত্তির মধ্যে রয়েছে সেন্ট্রাল লন্ডনের টাওয়ার হ্যামলেটস আবাসিক এলাকায় বেশ কয়েকটি বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্ট এবং লিভারপুলে ছাত্রদের আবাসন।
উল্লেখ্য, ইংল্যান্ডে বাংলাদেশিদের সবচেয়ে বড় অংশের বসবাস টাওয়ার হ্যামলেটস এলাকায়। এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে কোটি কোটি ডলারের সম্পত্তি রয়েছে।

সাইফুজ্জামান চৌধুরীর মালিকানাধীন প্রায় 250টি সম্পত্তির মধ্যে 90 শতাংশ সম্পূর্ণ নতুন নির্মাণে কেনা হয়েছে, নিউইয়র্ক সিটি ভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থার বিশ্লেষণ অনুসারে। এগুলি এমন সময়ে কেনা হয়েছিল যখন যুক্তরাজ্য একটি গুরুতর আবাসনের ঘাটতি অনুভব করছিল। তার এই সম্পত্তি কেনার ফলে যুক্তরাজ্যের মানি লন্ডারিং বিরোধী আইনের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

রাশিয়ার শাসক গোষ্ঠী লন্ডনে তাদের সম্পদ লুকিয়ে রাখতে পারে এমন সমালোচনার মধ্যে সরকার বিদেশিদের সম্পত্তির মালিকানা সম্পর্কে আরও স্বচ্ছতার প্রতিশ্রুতি দেওয়ার সময় কেনাকাটা করা হয়েছে।

2022 সালে ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের পরে, এই প্রক্রিয়াটির উপর আরও জোর দেওয়া হয়েছিল। সাইফুজ্জামান চৌধুরীর সম্পত্তি ক্রয়ের মামলা রাজনীতিবিদদের সম্পদ ক্রয়ের ক্ষেত্রে আইনের যথাযথ প্রয়োগ হচ্ছে কি না তা নিয়ে দেশে নতুন প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে।

ব্লুমবার্গ যুক্তরাষ্ট্রের ম্যানহাটনে সাইফজুমান চৌধুরীর অন্তত ৫টি সম্পত্তি চিহ্নিত করেছে। এই সম্পত্তিগুলি 2018 থেকে 2020 সালে কেনা হয়েছিল৷ পৌরসভার সম্পত্তির রেকর্ড অনুসারে, এই সম্পত্তিগুলির মূল্য প্রায় 6 মিলিয়ন ডলার৷

৫ জানুয়ারির নির্বাচনে সাইফুজ্জামান চৌধুরী পুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলেও মন্ত্রীত্ব হারান। এর আগে তিনি ভূমি সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন। সাইফুজ্জামান চৌধুরী বিদেশে বিপুল সম্পদ গড়ে তোলার খবর আসে বাংলাদেশ সরকারের মুদ্রা নিয়ন্ত্রণ কঠোর করার মধ্যে। এতে দেশের কোনো নাগরিক বছরে ১২ হাজার পাউন্ডের বেশি বিদেশে নিতে পারবেন না। এতে সাইফুজ্জামান চৌধুরীর এই বিশাল সম্পত্তির বৈধতা ও স্বচ্ছতা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।

তার বিশাল সম্পত্তি বিশ্বের বৃহত্তম দুটি শহরে বিস্তৃত। যুক্তরাজ্য রাজনীতিবিদ সহ বিদেশীদের জন্য একটি প্রধান আকর্ষণ। সাইফুজ্জামান চৌধুরীর সম্পত্তির বিষয়টি বিদেশী বিনিয়োগে একটি সম্ভাব্য জালিয়াতি এবং এটি নিয়ন্ত্রণে যুক্তরাজ্যের কঠোর আইনের প্রয়োজনীয়তা হিসাবে আলোচিত হয়েছে, ব্লুমবার্গ তার প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে। সম্পাদনাঃ ইকবাল খান

About Zahid Hasan

Check Also

জাহ্নবী কাপুরের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

মন্দিরের সিঁড়ির একপাশে অসংখ্য ভাঙা নারিকেল। তার পাশে থেকে হামাগুড়ি দিয়ে উপরে উঠছেন বলিউড অভিনেত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *