Thursday , June 20 2024
Breaking News
Home / economy / আবারও সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার কমিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করলো সরকার

আবারও সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার কমিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করলো সরকার

আবারও সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার কমিয়ে দিল সরকার। সাধারনত দেশের বিভিন্ন শ্রেনীর বিভিন্ন মানুষ নানা মেয়াদে এই সঞ্চয়পত্র ক্রয় করে থাকে। এমনকি অনেকেই রয়েছে যারা কিনা এই সঞ্চয়পত্রের মুনাফা দিয়ে জীবন-জীবিকা নির্বাহ করছে। সম্প্রতি এই মুনাফার হার কমিয়ে দেওয়ায় বেশ বিপাকে পড়েছে সঞ্চয়পত্রের মুনাফা দিয়ে জীবন-জীবিকা নির্বাহকারীরা। সম্প্রতি সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার প্রসঙ্গে বিস্তারিত উঠে এলো প্রকাশ্যে।

সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার কমিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ এ নিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।
প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, যারা নতুন করে সঞ্চয়পত্র কিনবেন, শুধু তাদের জন্য পরিবর্তিত এই হার কার্যকর হবে। আগের কেনা সঞ্চয়পত্রের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর সেটি পুনঃবিনিয়োগ করলে তখন নতুন মুনাফার হার কার্যকর হবে। ব্যক্তি ও প্রাতিষ্ঠানিক উভয়ের জন্য নতুন এই মুনাফার হার প্রযোজ্য হবে। প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, পাঁচ বছর মেয়াদি বাংলাদেশ সঞ্চয়পত্রে বর্তমানে মেয়াদ শেষে ১১ দশমিক ২৮ শতাংশ মুনাফা পাওয়া যায়। নতুন নিয়মে যাদের এই সঞ্চয়পত্রে ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ রয়েছে তারা মেয়াদ শেষে মুনাফা পাবেন ১০ দশমিক ৩০ শতাংশ হারে। আর ৩০ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ থাকলে মুনাফার হার হবে সাড়ে ৯ শতাংশ। তিন মাস অন্তর মুনাফা ভিত্তিক তিন বছর মেয়াদি সঞ্চয়পত্রে বর্তমানে মেয়াদ শেষে মুনাফার হার ১১ দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ। সেটি এখন ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে কমিয়ে করা হয়েছে ১০ শতাংশ। আর এই সঞ্চয়পত্রে যাদের বিনিয়োগ ৩০ লাখ টাকার বেশি তারা মেয়াদ শেষে মুনাফা পাবেন ৯ শতাংশ হারে।

অবসরভোগীদের জন্য নির্ধারিত পাঁচ বছর মেয়াদি পেনশনার সঞ্চয়পত্রে মেয়াদ শেষে এত দিন ১১ দশমিক ৭৬ শতাংশ হারে মুনাফা পাওয়া যেত। এখন এই সঞ্চয়পত্রে যাদের বিনিয়োগ ১৫ লাখ টাকার বেশি তারা মেয়াদ শেষে মুনাফা পাবেন ১০ দশমিক ৭৫ শতাংশ হারে। আর ৩০ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ থাকলে এই হার হবে ৯ দশমিক ৭৫ শতাংশ। দেশে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয় পরিবার সঞ্চয়পত্র। পাঁচ বছর মেয়াদি এই সঞ্চয়পত্রে মেয়াদ শেষে মুনাফার হার ১১ দশমিক ৫২ শতাংশ। এখন এই সঞ্চয়পত্রে ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগে মুনাফার হার কমিয়ে করা হয়েছে সাড়ে ১০ শতাংশ। আর ৩০ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে এই হার সাড়ে ৯ শতাংশ। ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংকের সাধারণ হিসাবে বর্তমানে মুনাফার সাড়ে ৭ শতাংশ, এতে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি। ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংকে তিন বছর মেয়াদি হিসাবে বর্তমানে মুনাফার হার ১১ দশমিক ২৮ শতাংশ। এখন ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগে মুনাফার হার হবে ১০ দশমিক ৩০ শতাংশ। আর ৩০ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগে হবে ৯ দশমিক ৩০ শতাংশ।

অবশ্যে অর্থনীতিবিদরা সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার কমিয়ে দেওয়া প্রসঙ্গে সরকারের নেয়া এই পদক্ষেপ বিষয়ে নানা ধরনের ভিন্নমত প্রকাশ করেছেন। এমনকি এর ক্ষতিকারক দিক গুলোও তুলে ধরেছেন তারা। এই বিয়ে সরকার জানিয়েছে দেশের অর্থনীতি সঠিক ভাবে প্রচালিত করার লক্ষ্যে এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

About

Check Also

আজ সর্বোচ্চ যত টাকায় বিক্রি হচ্ছে নগদ ডলার সহ অন্যান্য বৈদেশিক মুদ্রা

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য দিন দিন সম্প্রসারিত হচ্ছে। ব্যবসায়িক লেনদেন ঠিক রাখতে এর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *