Tuesday , May 21 2024
Breaking News
Home / Countrywide / বিরোধী রাজনীতিকদের বিরুদ্ধে অভিযান নিয়ে হিউম্যান রাইটস ওয়াচের প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে সরকার : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিরোধী রাজনীতিকদের বিরুদ্ধে অভিযান নিয়ে হিউম্যান রাইটস ওয়াচের প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে সরকার : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নির্বাচন সামনে রেখে রাজনৈতিক দলগুলো সভা-সমাবেশ করছে। নিরপেক্ষ সরকারসহ বিভিন্ন দাবিতে মাঠে কর্মসচি দেওয়া হচ্ছে বিএনপি। তবে তাদের এসব কর্মসূচিতে নানা ভাবে হামলা-আক্রমন চালানো হচ্ছে বলে দলটি পক্ষ থেকে জানানো হচ্ছে। কিন্তু আইশৃঙ্খলা বাহিনী এসব কর্মসূচিতে নিরাপত্তার ভূমিকা পালন করার থাকলেও তারা সে দায়িত্ব পালন না করে উল্টো তাদের ওপর হামলা করছে এমন অভিযোগ উঠেছে। এমন অভিযোগ এইচআরডব্লিউ’র পক্ষ থেকে করা হলে সেটি ভিত্তিহীন দাবি করে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, বিরোধী রা/জনীতিকদের বিরুদ্ধে অ/ভিযান নিয়ে হি/উম্যান রাইটস ওয়াচের (এইচআরডব্লিউ) প্র/তিবেদন প্রত্যাখ্যান ক/রেছে সরকার। আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, বিরোধী দলের রাজনীতিবিদদের হয়রানির অভিযোগ ভিত্তিহীন। গণগ্রেফতার ও পুলিশি অভিযানের অভিযোগ সত্য নয়, সে রকম কিছুই হচ্ছে না।”

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ সোমবার (১০ অক্টোবর) প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলেছে যে তারা অভিযোগ পেয়েছে যে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কর্তৃপক্ষ এবং সমর্থকরা ২০২৩ সালের জাতীয় নির্বাচনের আগে বিরোধী রাজনীতিবিদদের উপর হা/মলা ও হয়রানি করছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্পষ্টতই এই দাবি প্রত্যাখ্যান করেছেন। তিনি বলেন, এটা সরকারের পাশাপাশি দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার অপপ্রচার ছাড়া আর কিছুই নয়।

এইচআরডব্লিউ-এর বিবৃতির জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “পুলিশকে কিছু রুটিন দায়িত্ব পালন করতে হয় এবং কখনও কখনও তারা নাগরিকদের বাড়িতে গিয়ে খোঁজখবর নেয়। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই এটা করে থাকে পুলিশের বিশেষ শাখা। কিছু লোক নিখোঁজ হওয়ার খবর পাওয়া গেলে, বিশেষ শাখার সদস্যরা সত্য জানতে তাদের পরিবারের কাছে যান। এটা তাদের রুটিন ওয়ার্ক, অন্য কিছু নয়।”

আসাদুজ্জামান খান বলেন, গণগ্রেফতার ও পুলিশি অভিযানের অভিযোগ বিএনপি ও জামায়াতের অপপ্রচার।

নিউইয়র্ক ডেটলাইনে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে এইচআরডব্লিউ বলেছে, “বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষের উচিত আইনের শাসনকে সম্মান করা এবং বিরোধী রাজনৈতিক সমর্থকদের অধিকার, সংগঠনের স্বাধীনতা এবং শান্তিপূর্ণ সমাবেশের অধিকার রক্ষা করা।”

এতে বলা হয়েছে, “আসন্ন সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে গণগ্রেফতার ও বিরোধী দলের সদস্যদের বাড়িতে পুলিশি অভিযান, স/হিংসতা ও ভয়ভীতি গুরুতর উদ্বেগের কারণ।”

বিবৃতিতে হিউম্যান রাইটস ওয়াচের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক ড. মীনাক্ষী গাঙ্গুলি বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বারবার বলেছেন যে বাংলাদেশ একটি পরিপক্ক গণতন্ত্র, নির্বাচন পরিচালনা এবং শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে সক্ষম। তবে আগের নির্বাচনে স/হিংসতা, বিরোধীদের ওপর হা/মলা এবং ভোটারদের ভয় দেখানোর ঘটনা ঘটেছে।”

তিনি বলেন, “রাজনৈতিক হা/মলা ও গ্রেপ্তারের সাম্প্রতিক ঘটনা আসন্ন সংসদ নির্বাচনের জন্য একটি অশুভ সুর তৈরি করেছে,” ।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, গত ২২ আগস্ট থেকে জ্বালানি ও দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির বিরুদ্ধে বিএনপি ধারাবাহিক ভাবে বিক্ষোভ শুরু করে। এরপর থেকে পুলিশ ও বিরোধী দল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) ও আওয়ামী লীগের সমর্থকদের মধ্যে সং/ঘর্ষে অন্তত চারজন নি/হত ও শতাধিক আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, “এ ধরনের সং/ঘর্ষের পর কর্তৃপক্ষ বিএনপি সমর্থকদের বিরুদ্ধে গণমামলা দায়ের করে।” এটি বিএনপির একটি বিবৃতির প্রতিধ্বনি করেছে যে তার সমর্থকদের বিরুদ্ধে কমপক্ষে ২০,০০০ মামলা দায়ের করা হয়েছে, যার মধ্যে অ/জ্ঞাতনামা আসামি রয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “বড় সংখ্যক ‘অ/জ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি অভিযোগ বাংলাদেশে একটি সাধারণ অপমানজনক অভ্যাস; এটি পুলিশকে কার্যত যে কাউকে গ্রেপ্তার করতে ভয় দেখাতে, হু/মকি দিতে এবং বারবার আটক ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার করতে দেয়। এই ধরনের মামলার ফলস্বরূপ, আটক ব্যক্তিরা অভিযুক্ত না হয়েও জামিন চাইতে ব্যর্থ হয়।”

মীনাক্ষী গাঙ্গুলী বলেন, “যুক্তরাষ্ট্রের মানবাধিকার নিষেধাজ্ঞা এবং আসন্ন সংসদ নির্বাচনের কারণে বাংলাদেশের আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো বাড়তি যাচাই-বাছাইয়ের মধ্যে রয়েছে। বাংলাদেশী কূটনীতিকদের উচিত প্রকাশ্যে এবং ব্যক্তিগতভাবে উদ্বেগ প্রকাশ করা, যে এই ধরনের দমন-পীড়ন একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনকে হু/মকির মুখে ফেলেছে।

প্রসঙ্গত, বিরোধী দলের নেতাকর্মীর ওপর এমন হামলা চালালে তার ব্যাপক প্রভাব পড়েছে আগামী নির্বাচনে। এতে নির্বাচলকালীন সময়ে দেশে সাংঘর্ষিক পরস্থিতি সৃষ্টি হবে।

About Babu

Check Also

অবন্তিকার পর এবার একই পথে হাঁটল মীম

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আ/ত্মহত্যা করেছে। শিক্ষার্থীর নাম শারভীন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *