Tuesday , July 16 2024
Breaking News
Home / Countrywide / বিএনপিকে তিনটি বিষয়ে জোর দেওয়ার পরামর্শ দিলে পেশাজীবীরা

বিএনপিকে তিনটি বিষয়ে জোর দেওয়ার পরামর্শ দিলে পেশাজীবীরা

বিভিন্ন ধরনের বেশ কিছু পেশাজীবী সংগঠনের সাথে দুই দিনব্যাপী বৈঠক করার পর আজ সেই কর্মপরিকল্পনা শেষ করেছে বাংলাদেশের অন্যতম রাজনৈতিক দল বিএনপি। গতকাল (শনিবার) বিকাল ৩.৩০ টার সময়ে গুলশানে অবস্থিত বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে ২য় দিনের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। তারেক রহমান যিনি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে রয়েছেন তিনি লন্ডন হতে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যোগ দেন। এর আগে গত শুক্রবার প্রথম দিনের বৈঠকে দলের অনেক নেতাকর্মী যোগ দেওয়ার মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়। দুই দিনব্যাপী এই বৈঠকে আইনজীবী, ডাক্তার, প্রকৌশলী, শিক্ষক, সাংবাদিক, কৃষিবিদ, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব এবং প্রযুক্তিবিদসহ ৩২ টির মতো পেশাজীবী সংগঠনের ১৯০ জন নেতা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে দেশ ও বিদেশের সমসাময়িক রাজনীতি, ২০দলীয় জোটের বিষয়, বিশেষ করে জামায়াতের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি, রাজনৈতিক মাঠে নিজের মিত্র দলগুলোর সঙ্গে ঐক্যের আলোচনার বিষয়েও বিএনপি’র হাইকমান্ডের কাছে নিজেদের মতামত জানিয়েছেন পেশাজীবী নেতারা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বৈঠকে অংশ নেয়া বেশ কয়েকজন নেতা একটি গনমাধ্যমকে বলেন, নিরপেক্ষ সরকারের দাবি আ’দায়ে রাজনৈতিক ও কূ’টনৈতিক, দু’দিক থেকেই সরকারকে চা’পে ফেলতে হবে। রাজনৈতিকভাবে চা’পে ফেলতে পারলে আন্তর্জাতিক মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করা যাবে। এই চিন্তা নিয়ে বিএনপিকে ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা ঠিক করার পরামর্শ দিয়েছেন নেতারা।

শনিবার বৈঠক শেষে বের হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক মাহবুব উল্লাহ বলেন, আ’/ন্দো’/লন সংগ্রাম করা একটি গণতান্ত্রিক দেশের জনগণের মৌলিক অধিকার। মানুষ অ’/ন্যা’য়ের প্র’তিবা/দ করতে, ন্যায়ের শা’/সনের দা’বি জানাবে- এটাই স্বাভাবিক। তবে সাধারণ মানুষের যে আকাঙ্ক্ষা সেটা যদি মানুষ প্রকাশ করতে না পারে তাহলে তো সমস্যা। সেই সঙ্গে যারা আ’/ন্দো’/লন করবেন তারা যেন মনে রাখেন, আ’/ন্দো’/লন যেন স’হিং’/স না হয়। যাতে করে সাধারণ জনগণ এই আ’/ন্দো’/লনে অংশ নিতে ভ’/য় না পায়। কারণ সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণ না থাকলে শুধু কর্মীদের দিয়ে আ’/ন্দো’/লন হয় না। এটা আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা। আমরা ’৬৯ সালে আ’/ন্দো’/লন করেছি।

তখন দেখেছি সাধারণ মানুষ কীভাবে আ’/ন্দো’/লনে শরিক হয়েছে। তিনি বলেন, এখন সবকিছুই পরিবর্তন হয়ে গেছে। এখন সেই কালচার দেশে নেই। সাধারণ মানুষকে আ’/ন্দো’/লনমুখী করতে হবে। তাহলে দেশ ও মানুষের মঙ্গল হবে। বৈঠকের বক্তব্যের বিষয়ে অধ্যাপক মাহবুব উল্লাহ বলেন, আজকের (গতকালের) বৈঠকে একটা বিষয়ে আমি বলার চেষ্টা করেছি সেটা হচ্ছে, মানুষের মধ্যে ক্ষো’/ভ আছে, হতা’শা আছে, দুঃখ আছে, রাজনৈতিক কর্মীদের মধ্যেও এসব আছে।

এই সবকিছুকে শক্তিতে পরিণত করাটাই হবে আমাদের অন্যতম কাজ। আমি বলেছি যে, বিএনপি সাংগঠনিক দিক হতে কতটা প্রস্তুত রয়েছে? কারণ এখন আর আগের মতো আ’/ন্দো’লন করলে হবে না, পরিস্থিতি আগের চেয়ে কঠিন। সেটাও মনে রাখাটা অনেক দরকার। এখন বেপ’রো/ায়া হওয়ার কোনো অবকাশ নেই।

গতকালের (শনিবার) অনুষ্ঠিত সভাতে শুরুর দিকে যে সকল নেতারকর্মী উপস্থিত ছিলেন তাদের সকলকে উদ্দেশ্য করে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এর আগে যারা আমাদের দলের নেতা তারা বিভিন্ন দিক তুলে ধরার মাধ্যমে তাদের মতামত জানিয়েছেন। পেশাজীবি যারা রয়েছেন তারা গতকাল তাদের মতামত দিয়েছেন। আজ, আমি আপনাদেরকে এটা বলছি যে, দেশের সামগ্রিক রাজনৈতিক দিকটা বিবেচনা করুন এবং সেই দিক থেকে আপনারা একটি সুনির্দিষ্ট মতামত জানান।

 

 

About

Check Also

শিক্ষার্থীদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে এবার মাঠে নামার ঘোষণা দিয়েছে ছাত্রদল

কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে মাঠে নামার ঘোষণা দিয়েছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। বৈষম্য বিরোধী ছাত্র আন্দোলন ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *