Monday , July 22 2024
Breaking News
Home / National / এবার এবং পরের দুই বারের নির্বাচন কমিশন গঠন পদ্ধতি জানালেন আইনমন্ত্রী

এবার এবং পরের দুই বারের নির্বাচন কমিশন গঠন পদ্ধতি জানালেন আইনমন্ত্রী

দেশ জুড়ে নির্বাচন কমিশন গঠন পদ্ধতিকে ঘিরে রাজনৈতিক দল গুলোর মধ্যে চলছে ব্যপক আলোচনা-সমালোচনা। মূলত বর্তমন নির্বানচ কমিশনের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে রয়েছে নানা ধরনের অনিয়মের অভিযোগ। এরই ভিত্তিতে নিরপেক্ষ নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে বেশ কিছু দাবি তুলেছে রাজনৈতিক দল গুলো। তবে এবার নির্বাচন কমিশন গঠন পদ্ধতি জানালেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে আইন করার সময় এসেছে। তবে এ কমিশন গঠনে আইন করার সময় নেই, তাই এ দফায় তা বাস্তবায়ন সম্ভব না বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। রোববার (১০ অক্টোবর) রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, এবারও সার্চ কমিটির মাধ্যমেই নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে। পরের বার আইনের মাধ্যমেই হবে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে আগামী বছরের জানুয়ারিতে সার্চ কমিটি গঠন করা হবে। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ওই সার্চ কমিটি গঠন করবেন। চার সদস্যের, না ছয় সদস্যের সার্চ কমিটি হবে তা এখনো নিশ্চিত নয়। পূর্বের ন্যায় সার্চ কমিটির সাচিবিক দায়িত্ব পালন করবে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি বর্তমান কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্বাধীন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। কমিশনের মেয়াদ শেষ হওয়ার এক মাস আগেই এ সার্চ কমিটি গঠিত হয়।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার আইনমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, সার্চ কমিটির মাধ্যমে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে। কোভিডের কারণে এখন নতুন আইন করে ইসি গঠনের সুযোগ নেই। এর আগে গত ৪ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও সার্চ কমিটির মাধ্যমে নতুন ইসি গঠনের কথা জানিয়েছিলেন। সংবিধানে বলা আছে, কমিশন-সংক্রান্ত একটি আইনের অধীন রাষ্ট্রপতি এ নিয়োগ দেবেন। তবে গত ৫০ বছরেও এই আইন প্রণয়ন সম্ভব হয়নি। ২০১২ সালের ২২ জানুয়ারি প্রয়াত রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমান প্রথমবারের মতো রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ করে চার সদস্যের সার্চ কমিটি করেছিলেন। বর্তমান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদও ২০১৭ সালের ২৫ জানুয়ারি একই পদ্ধতি অনুসরণ করে ছয় সদস্যের কমিটি করেছিলেন। তিনি প্রথমবার সার্চ কমিটিতে একজন নারী সদস্য অন্তর্ভুক্ত করেন। ইতোমধ্যে সার্চ কমিটি গঠন নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে মতবিরোধও তৈরি হয়েছে।

কয়েকদিন আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য নেতাকর্মীদের প্রস্তুতি গ্রহনের আহ্বান জানিয়েছেন। এরই লক্ষ্যে নির্বাচন কমিশন গঠন এবং নির্বাচন ব্যবস্থা কে ঘিরে সরব হয়ে উঠেছে দেশের রাজনৈতিক দল গুলো। এমনকি সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষে নির্বাচনের দাবি তুলে বেশ কিছু শর্ত ও দিয়েছে রাজনৈতিক দল গুলো।

About

Check Also

জাহ্নবী কাপুরের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

মন্দিরের সিঁড়ির একপাশে অসংখ্য ভাঙা নারিকেল। তার পাশে থেকে হামাগুড়ি দিয়ে উপরে উঠছেন বলিউড অভিনেত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *