Wednesday , July 24 2024
Breaking News
Home / Countrywide / আমি আমার বাবার প্রান নিয়েছি, বলে থানায় ছেলের আত্মসমর্পন

আমি আমার বাবার প্রান নিয়েছি, বলে থানায় ছেলের আত্মসমর্পন

বাবা ও ছেলের সম্পর্ক হলো পৃথিবীর মধুরতম সম্পর্কের মধ্যে একটি। একজন পিতার তার সন্তান ও সহধর্মিনীর উপর একজন গৃহকর্তার অনেক দায়-দ্বায়িত্ব থাকে যেগুলো তাকে পূরণ করতে হয়। সন্তানকে যথাযথ ব্যবহার ও সুশিক্ষায় শিক্ষিত করা তোলা তার নৈতিক দ্বায়িত্ব ও কর্তব্য। বাবা-মা দুজনেই সন্তানের কাছে সম্মানের পাত্র। কিন্তু তারা যদি এমন কাজ করে যেটা আসলে অমানবিক তাহলে সন্তানদের পক্ষে তা মেনে নেয়া খুব কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়। এবার রাজধানী ঢাকায় ( Dhaka ) ঘটলো এক সন্তানের অপ্রত্যাশিত কান্ড।

রাজধানীর ভাটারা ( Bhatara ) এলাকায় হাতুড়ি দিয়ে মাথায় আঘা”/ত করে বাবাকে নিথর করার পর থানায় আত্মসমর্পণ করেছে তাঁর ছেলে। গতকাল বুধবার সকালে ( Wednesday ) এ ঘটনা ঘটে। প্রয়াত ব্যক্তির নাম শেখ মো. সেলিম ( Sheikh Md. Selim ) (৭০)। তিনি পাথর সরবরাহের ঠিকাদার ছিলেন।

তাদের গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া ( Brahmanbaria ) জেলার আশুগঞ্জ ( Ashuganj ) থানায়।
পুলিশ সেলিমের ( Selim ) দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। দুপুরে থানায় আত্মসমর্পন করেছেন তাঁর ছেলে শেখ মো. নাসির।

ভাটারা ( Bhatara ) থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজেদুর রহমান ( Sajedur Rahman ) বলেন, ‘‘সকালে থানায় গিয়ে শেখ নাসির বলেন- ‘আমি আমার বাবাকে না ফেরার দেশে পাঠিয়ে দিয়েছি।’ পরে জিজ্ঞাসাবাদে নাসির বলেছেন, তার মা দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ। কিন্তু স্বচ্ছল বাবা মাকে ডাক্তার দেখাচ্ছিলেন না। এতে ক্ষু’ব্ধ হয়ে তিনি বাবার মাথায় হাতুড়ি দিয়ে আঘা”/ত করেন। তার কথামত বাসায় গিয়ে নিথর দেহ উদ্ধার করা হয়। ’’

পুলিশ জানায়, সেলিম সপরিবার ভাটারা ( Bhatara )র একটি ভবনের দোতলায় থাকতেন। গতকাল সকালে ওই বাসায় কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে হাতুড়ি দিয়ে সেলিমের ( Selim ) মাথায় আ”/ঘাত করেন নাসির। এতে সেলিম ঘটনাস্থলেই নিথর হন।

ঘটনার পর ঘরের দরজা বন্ধ করে বাসা থেকে বের হয়ে যান নাসির। দুপুর ২টার দিকে নাসির ভাটারা ( Bhatara ) থানায় এসে আত্মসমর্পণ করে বলেন, তিনি বাবাকে নিথর করছেন। এই ঘটনার জন্য তিনি নিজের বিচার চান। পরে ভাটারা ( Bhatara ) থানা পুলিশ ওই বাসা থেকে শেখ সেলিমের ( Selim ) নিথর দেহ উদ্ধার করে। ময়নাতদন্তের জন্য দেহ শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ ( Shaheed Suhrawardy Medical College ) ম”/র্গে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, নাসির পুলিশের কাছে বলেন, তাঁর মা দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ। কিন্তু স্বচ্ছল বাবা মাকে চিকিৎসা করাচ্ছিলেন না। এ নিয়ে বাসায় বসে কথা কা”টাকাটি হয়, নাসির আর তার বাবার সাথে। এতে ক্ষু”ব্ধ হয়ে তিনি বাবার মাথায় হাতুড়ি দিয়ে আ”/ঘাত করেন এবং তার পিতা ঘটনাস্থলেই তার শরীর একেবারে নিথর হয়ে যায়। এই ঘটনাটি ঘটে রাজধানীর ভাটারা ( Bhatara ) এলাকায়। এই ঘটনার পর নাসির থানায় যেয়ে আত্নসমর্থন করে।

About bisso Jit

Check Also

ধোঁয়া আর বারুদের গন্ধে উত্তপ্ত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জ্যাব) কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ারশেল-সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করেছে পুলিশ। শিক্ষার্থীরাও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *