Tuesday , July 16 2024
Breaking News
Home / National / অনেকগুলো ঘটনা ঘটে গেছে, আমরা বিব্রত: নূরুল হুদা

অনেকগুলো ঘটনা ঘটে গেছে, আমরা বিব্রত: নূরুল হুদা

দেশের সকল প্রকার নির্বাচন ব্যবস্থা নির্বাচন কমিশন পরিচালনা করে থাকে। বর্তমান সময়ে এই নির্বাচন কমিশনের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন কেএম নূরুল হুদা। অবশ্যে ইএ নির্বাচন কমিশনের উপর নির্ভর করে দেশে সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন ব্যবস্থা। সম্প্রতি স্থানীয় সরকারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ব্যপক হ তাহতের ঘটনা ঘটেছে দেশের বিভিন্ন অঞ্বলে। এরি প্রসঙ্গে বেশ কিছু কথা তুলে ধরলেন নির্বাচন কমিশনের প্রধান কেএম নূরুল হুদা।

স্থানীয় সরকারের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের স/হিং/স/তার ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় নির্বাচন কমিশন (ইসি) বিব্রত বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা। ধাপে ধাপে অনুষ্ঠিত তৃনমূলের এ নির্বাচনে সহিংসতায় ১৬ জনের প্রাণ যাওয়ার পর মঙ্গলবার বিকালে আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এমন মন্তব্য করেন। সিইসি নূরুল হুদা বলেন, ‘নির্বাচনে স/হিং/স/তার ঘটনা বেড়ে যাচ্ছে সেটা ঠিক, আমরা সেটি প্রত্যক্ষ করেছি। নির্বাচনের ব্যাপারে মাঠপর্যায়ে কী ধরনের নির্দেশনা দেওয়া দরকার সেটি নিয়ে চিন্তাভাবনা করছি। আমরা আশা করি আগামী ৪ তারিখে বিস্তারিত আলোচনা করব। অনেকগুলো ঘটনা ঘটে গেছে। যেগুলো নিয়ে আমরা বিব্রত। সেটা নিয়ন্ত্রণের জন্য আমরা কমিশনারদের সঙ্গে আলোচনা করে মাঠপর্যায়ে দিকনির্দেশনা দেব’।

নির্বাচনে স/হিং/স/তা/র ঘটনা কেন ঘটছে, মাঠপর্যায়ে কি কমিশনের নিয়ন্ত্রণ নেই- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, ‘আমাদের নিয়ন্ত্রণ আছে। কিন্তু মাঠপর্যায়ে যদি সহনশীলতা না থাকে, তাহলে তো নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব না। আমরা বারবার বলি নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে, প্রতিযোগিতামূলক হবে, কিন্তু প্র/তি/হিং/সা/মূলক হবে না। আমরা আপনাদের মাধ্যমে জানাতে চাই, নির্বাচনে যে স/হিং/স ঘটনা ঘটছে, সেটা সবার প্রচেষ্টার মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। ’ সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, ‘অভিযোগ এলেই আমরা ব্যবস্থা নেই। কিন্তু তাৎক্ষণিক কোনো ফৌজদারি ঘটনা ঘটলে, সেটা আমরা এখানে বসে কিছু করতে পারি না। এগুলো পূর্বপরিকল্পিত হয় না বা প্রশা/স/ন তা আগে থেকেই জানতে পারে না। ফৌজদারি ঘটনাগুলো ঘটলে তা মাঠপর্যায়ে নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে আমাদের কঠোর নির্দেশনা আছে। ’

শরীয়তপুরে কয়েকজন প্রার্থীর স্বাক্ষর জাল করে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করার অভিযোগের প্রসঙ্গে সিইসি বলেন, ‘এই বিষয়ে কমিশনের একজন যুগ্ম-সচিবকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। প্রতিবেদনটা পেলেই আমরা ঠিক যে অবস্থান সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেব। সাত দিনের মধ্যে আমরা এটি জানতে পারব। ’ রাজনৈতিক দলের ভূমিকা পজেটিভলি দেখছেন কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে নুরুল হুদা বলেন, ‘আমরা খুব পজেটিভলি দেখছি না। দুঃখজনক হলেও সত্যি। এই সমস্ত বিষয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর সক্রিয় ভূমিকা থাকা দরকার। নির্বাচনের বিষয়টি শুধু নির্বাচন কমিশনের না, এটা সকলেরই। আমরা তার ব্যবস্থাপনায় থাকি শুধু। সুতরাং তারা আরও প্রোঅ্যাকটিভ যদি হয়, তাহলে এগুলো আরও কমে আসবে। ’

অবশ্যে এই নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে। জাতীয় নির্বাচনেও তারা নানা ধরনের অনিয়ম করেছে বলে অভিযোগ করেছে দেশের বেশ কিছু রাজনৈতিক দল। এমনকি এই কমিশনের দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তাদের পদত্যাগ চেয়েছে। তবে বারাবরই এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে নির্াবচন কমিশন। এবং তারা জানিয়েছে দেশে সুষ্ঠও নিরপেক্ষ ভাবে সকল নির্বচন কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়েছে।

About

Check Also

জাহ্নবী কাপুরের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

মন্দিরের সিঁড়ির একপাশে অসংখ্য ভাঙা নারিকেল। তার পাশে থেকে হামাগুড়ি দিয়ে উপরে উঠছেন বলিউড অভিনেত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *