গত কয়েকদিন দুর্নীতির অভিযোগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলন করছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।ভিসির বিরুদ্ধে অভিযোগ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের টাকা তিনি আত্মসাত করেছেন। উন্নয়ন প্রকল্পের টাকায় ছাত্রলীগকে ঈদ সালামি দিয়েছেন তিনি। শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের দীর্ঘ আন্দোলনের পরও দুর্নীতির অভিযোগে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম পদত্যাগ না করায় নিন্দা জানিয়েছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। ভিসি ফারজানার ক্ষমতার উৎসও জানিয়েছেন তিনি।মঙ্গলবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে ৭ নভেম্বর ’জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ উপলক্ষে এক আলোচনাসভায় তিনি এ কথা বলেন। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল এ সভার আয়োজন করে।
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের আন্দোলন প্রসঙ্গে মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, এই উপাচার্য নাকি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বোন শেখ রেহানার বন্ধু। তাই তার কোনো শাস্তি হচ্ছে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের বরাদ্দ করা টাকা লুটেপুটে খাচ্ছেন তিনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাকৃতিক পরিবেশ ধ্বংস করছেন এবং গাছপালা কেটে বিভিন্ন প্রজেক্টের নাম করে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করছেন।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display

আলোচনাসভায় আরও উপস্থিত ছিলেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, শামীমুর রহমান শামীম প্রমুখ।
প্রসঙ্গত,এদিকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে ভিসি অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের অপসারণ না করার নিন্দা জানিয়েছেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জুনায়েদ সাকি। তিনি বলেছেন, যে অভিযোগে ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতৃত্ব থেকে শোভন-রাব্বানীকে বাদ দেয়া হয়েছে একই অভিযোগে ভিসিকে কেন অপসারণ করা হচ্ছে না।মঙ্গলবার দুপুরে জাবিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের পরে সংহতি সমাবেশে অংশ নিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।
গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জুনায়েদ সাকি বলেন, অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম শুধু নিজের মর্যাদাই ক্ষুণ্ণ করেননি তিনি অধ্যাপকের মর্যাদা ও এই পদকে কলঙ্কিত করেছেন। যে অভিযোগে শোভন-রাব্বানী পদ হারাল সেই অভিযোগে উপাচার্যকে কেন অপসারণ করা হল না? শোভন-রাব্বানীর বিরুদ্ধে ’ঈদ সেলামি’ কাণ্ডেই দুর্নীতির অভিযোগ আছে। তিনি বলেন, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগ যখন হামলা করল তখন উপাচার্য কী করল? হামলা করা যদি ছাত্রলীগের দায় হয়ে থাকে তবে তিনি (উপাচার্য) কেন পদত্যাগ করলেন না?

News Page Below Ad

আরো পড়ুন

Error: No articles to display