Thursday , June 20 2024
Breaking News
Home / International / বাইডেনের আমন্ত্রনের চূড়ান্ত তালিকায় নেই বাংলাদেশ, রয়েছে পাকিস্তান

বাইডেনের আমন্ত্রনের চূড়ান্ত তালিকায় নেই বাংলাদেশ, রয়েছে পাকিস্তান

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আগামি মাসের (ডিসেম্বর) ৯ এবং ১০ তারিখে ভার্চুয়াল ডেমোক্রেসি কনফারেন্সের (গণতন্ত্র সম্মেলন) আয়োজন করতে চলেছেন। সমগ্র বিশ্বের দেশগুলো থেকে ১১০ টির মতো দেশকে এই সম্মেলনে যোগ দেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। সম্মেলনে দাওয়াত পেয়েছে পাকিস্তান, তাইওয়ান ও ইরাকের মতো দেশ, কিন্তু আমন্ত্রনের তালিকায় নেই বাংলাদেশের নাম। গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের ওয়েবসাইটে এই তালিকা প্রকাশ করার পর এ তথ্য জানা গেছে। খবর এনডিটিভির।

ওয়েবসাইটে যে তালিকা দেওয়া হয়েছে সেই তথ্য অনুযায়ী, চীনকে আমন্ত্রণ না জানানো হলেও দাওয়াতের তালিকায় তাইওয়ান রয়েছে। এই পদক্ষেপে চীন ক্ষু’ব্ধ হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। তালিকায় তুরস্ক ও রাশিয়ার নামও রাখা হয়নি বলে জানা গেছে।

এদিকে মধ্যপ্রাচ্য থেকে শুধু ইসরাইল ও ইরাক আমন্ত্রণ পেয়েছে সম্মেলনে অংশ নেওয়ার জন্য। মিসর, সৌদি আরব, জর্ডান, কাতার ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের মতো মিত্রদের দাওয়াত দেয়নি যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে এ সম্মেলনে আমন্ত্রিতদের একটি তালিকা প্রকাশ করেছিল পলিটিকো ম্যাগাজিন। সেখানেও বাংলাদেশের নাম ছিল না বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়েছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর বাইডেন পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ে তার প্রথম ভা’ষণে গণতন্ত্র সম্মেলন আয়োজনের অঙ্গীকার করেন। রাশিয়া ও চীনসহ গোটা বিশ্বে কর্তৃত্ববাদী শা’সনের বিস্তার ঘটার পরিপ্রেক্ষিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট সম্মেলনের আয়োজন করছেন।

চলতি বছরের ডিসেম্বরে আমন্ত্রিত দেশগুলোর নেতারা গণতন্ত্র, ব্যক্তিগত ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, মানবাধিকার বিষয়ে তাদের অঙ্গীকার ব্যক্ত করবেন। এক বছর পর ২০২২ সালের ডিসেম্বরে এসব ক্ষেত্রে অগ্রগতি যাচাই করতে আরেকটি ফলোআপ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্বব্যাপী চলমান পরিস্থিতির উন্নতি হলে দেশগুলোর নেতাদের সশরীরে আমন্ত্রণ জানানো হবে।

এই তালিকায় ব্রাজিলকেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে যদিও দেশটির প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো দীর্ঘদিন ধরে তার ডানপন্থী মতামতের জন্য নিন্দিত হয়েছেন এবং বিত’র্কিত সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কট্টর সমর্থক ছিলেন। অধিকার আশা করা গোষ্ঠীগুলি প্রশ্ন করেছে যে এই শীর্ষ সম্মেলনে আমন্ত্রিত বিশ্বনেতাদের, কিছু স্বৈরাচারী প্রবণতাকে আশ্রয় দেওয়ার জন্য অভিযুক্ত, অর্থপূর্ণ পদক্ষেপ নিতে বাধ্য করতে পারে কিনা।

স্টেট ডিপার্টমেন্টের তালিকা দেখায় যে ইভেন্টটি ফ্রান্স এবং সুইডেনের মতো পরিপক্ক গণতন্ত্রকে একত্রিত করবে কিন্তু ফিলিপাইন, ভারত এবং পোল্যান্ডের মতো দেশগুলিকেও একত্রিত করবে, যেখানে কর্মীরা বলছেন গণতন্ত্র হু/ম’কির মুখে রয়েছে, রিপোর্ট রয়টার্স।

About

Check Also

এ বছরের সবচেয়ে বড় দুর্ঘটনা: নৌকাডুবিতে ‘‘নিহত অথবা নিখোঁজ’’ ৭০

ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশের উপকূলে নৌকা ডুবির এক ঘটনায় ৭০ জনেরও বেশি রোহিঙ্গা ‌‌‘‘নিহত অথবা নিখোঁজ’’ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *