Tuesday , February 27 2024
Breaking News
Home / Countrywide / এবার নির্বাচনে আসা প্রশ্নে সুর পাল্টালেন ব্যারিস্টার পার্থ

এবার নির্বাচনে আসা প্রশ্নে সুর পাল্টালেন ব্যারিস্টার পার্থ

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশের রাজনীতি এখন তুঙ্গে। নির্বাচনের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। অন্যদিকে স্বাধীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের নির্বাচন বাতিলের দাবিতে রাজপথে বিক্ষোভ করছে বিএনপি।

এদিকে নির্বাচনকে গ্রহণযোগ্য ও অংশগ্রহণমূলক করতে বিএনপি ও সমমনা দল ও জোট থেকে জনগণকে বিভক্ত করার চেষ্টার অভিযোগ রয়েছে ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে। এ অবস্থায় অনেকেই জোট ছেড়ে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিচ্ছেন। এতে নির্বাচনী পরিবেশে নতুন মাত্রা যোগ হচ্ছে। তবে নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়ে তার অবস্থান স্পষ্ট করেছেন বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ।

সোমবার দেশের সমসাময়িক বিভিন্ন রাজনৈতিক বিষয়ে টকশোর আয়োজন করে একটি বেসরকারি টেলিভিশন। সেখানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন এবং সাবেক সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ ন্যাশনাল পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ অংশ নেন।

টকশোর একপর্যায়ে ব্যারিস্টার পার্থ বলেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপিতে রাজনীতিবিদদের মারাত্মক অভাব রয়েছে। সেজন্য বিএনপিকে দিতে হবে তাবিথ আউয়ালকে আর আওয়ামী লীগকে দিতে হবে আতিক সাহেবকে।

আহমদ হোসেনকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, গ্রামাঞ্চলে আপনার (আওয়ামী লীগের) মার্কা দিয়ে দেন। কারণ হল গ্রামে দুর্ভাগ্যজনকভাবে আবেগপ্রবণ মানুষ আছে। তারা ঝাঁপিয়ে পড়ল ধানের শীষ আর নৌকার দিকে। আপনারা (আওয়ামী লীগ) ধীরে ধীরে শহরে সংখ্যালঘু হয়ে যাচ্ছেন। ঢাকায় জনসভা করলে সব বন্ধ করে দেন কেন? কারণ আপনি জানেন- আপনার সভায় ধামরাই, নরসিংদী, মানিকগঞ্জ থেকে লোক আনতে হবে। এর প্রধান কারণ ঢাকার মানুষ আপনার থেকে দূরে সরে যাচ্ছে।

বাংলাদেশের বড় সমস্যা কি জানেন? বড় সমস্যা দু/র্নীতি নয়, সমস্যা হলো রাজনীতিকে সময়ের সঙ্গে পরিবর্তন করা যায় না। এ কারণে গত ৩০ বছরে ভালো মানুষ রাজনীতিতে আসেনি। এ কারণে অযোগ্যরা সংসদে যায়। রাজনীতি থেকে বেরিয়ে এসেছে একটি বড় প্রজন্ম।

পার্থ বলেন, আমরা চাই ভালো ছেলেরা রাজনীতিতে আসুক। আমরা তাদের ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি। আর আপনারা (আওয়ামী লীগ) জাতিকে বিভক্ত করার প্রক্রিয়ায় নেমেছেন। আপনি বঙ্গবন্ধুর সাথে অন্যদের তুলনা করছেন। এটা সবসময় জাতিকে বিভক্ত করেছে। দেশ নিয়ে কি করবেন জানেন না?

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন ব্যারিস্টার পার্থকে প্রশ্ন করেন, আগামী নির্বাচনে এখন কী করবেন? জবাবে পার্থ বলেন, আমি নির্বাচন করব না।

তা হলে নির্বাচন বর্জন করবেন?

জবাবে পার্থ বলেন, হ্যাঁ আমরা নির্বাচন পরিত্যাগ করব। আমরা নির্বাচনে যাব না। ভোট শেষ হলেও নির্বাচন করব না, সত্য তুলে ধরব। মানুষ আমাদের কথা শুনছে। এসব কথায় আপনাদের তো লজ্জা লাগে না। বেহায়াদেরও একটা সমাজ আছে। আপনারা ভোট চুরি করবেন। পরে বলবেন- আমরা জনগণের ম্যান্ডেট পেয়েছি।

About Babu

Check Also

স্বামীকে ‘দুলাভাই’ পরিচয় দেওয়া সেই যুবলীগ নেত্রী রিমান্ডে

জালিয়াতির মাধ্যমে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে পাবনা জেলা যুব মহিলা লীগের সদস্য মিম খাতুন ওরফে আফসানা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *