Monday , June 24 2024
Breaking News
Home / Sports / ১০ বছর আগে করা কোহলির টুইট যেন সত্যি হয়ে এলো টিম ইন্ডিয়ার ভাগ্যে

১০ বছর আগে করা কোহলির টুইট যেন সত্যি হয়ে এলো টিম ইন্ডিয়ার ভাগ্যে

চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ক্রিকেট দল তার তকমা দেখিয়ে যাচ্ছ, আর সেখানে তার প্রতিবেশী দেশ ভারতের ক্রিকেট দল তাদের আগের জনপ্রিয়তা নিয়ে খেলতে নেমে যেন অনেকটা বিড়’ম্বনায় পড়েছে। প্রথম দুই ম্যাচে পরাজিত হওয়ার পর তাদের জনপ্রিয়তার সেই তকমা যেন উড়ে গেছে। পাকিস্তান ও নিউজিল্যান্ডের সাথে পরাজিত হওয়ার পর গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায়ের পথে রয়েছে ভারত। এই পরিস্থিতিতে দশ বছর আগে বিরাট কোহলির করা একটি টুইট নিয়ে হৈচৈ পড়ে গেল।

২৩ জানুয়ারী, ২০১১ তারিখে রাত ১০ টা ৪১ মিনিটে বিরাট কোহলি একটি টুইট করেন। সেখানে তিনি লিখেছিলেন, ‘হেরে গিয়ে খুব মন খারাপ লাগছে। এবার বাড়ি যাচ্ছি’।

সেই টুইট তুলে ধরেই নেটমাধ্যমে বলা হচ্ছে, এবার সত্যিই কোহলীদের বাড়ি যাওয়ার সময় এসে গিয়েছে। কারণ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে যেতে এখন তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে তিন দুধের শি’/’শু আফগানিস্তান, নামিবিয়া ও স্কটল্যান্ডের দিকে।

কোহলী যে রাতে টুইট করেছেন, সেদিন সেঞ্চুরিয়নে একদিনের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হয়েছিল ভারত। সিরিজ ২-২ থাকা অবস্থায় নেমেছিল দুই দল।

প্রথমে ব্যাট করে হাশিম আমলার অপরাজিত শতরানের সুবাদে ২৫০-৯ তোলে দক্ষিণ আফ্রিকা। রান তা’/ড়া করতে নেমে সেদিনও ব্যাটিং ধ’সের মুখে পড়ে ভারত। কোহলী নিজে মাত্র ২ রান করেন। শেষ দিকে ইউসুফ পাঠান ঝড়ো ইনিংস খেলে শতরান করলেও শেষ পর্যন্ত ১৬ রানে হেরে সিরিজ হাতছাড়া করে ভারত।

উল্লেখ্য, টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক বিরাট কোহলির ১০ বছরের পুরনো টুইটটি চলমান আইসিসি পুরুষদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে রবিবার নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তার দলের পরাজয়ের পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভা’ইরাল হয়েছে। কয়েন টসে কোহলির ভাগ্য তার সাথে লুকোচু’রি খেলতে থাকে কারণ নীল রঙের পুরুষরা প্রথমে ব্যাট করতে নামে। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে ট্রেন্ট বোল্টের বলে আউট হয়ে যাওয়ায় নতুন ওপেনিং কম্বিনেশনটি সাহায্য করেনি। তবে কোহলির ঐ টুইট এবারে মিলে যাওয়ায় নেটিজেনরা খুব উপভোগ করছে।

About

Check Also

কিছু বাকি নাই, সব আছে: সাকিব

রোববার ছিল সাকিব আল হাসানের জন্মদিন। সাকিব ৩৬ পেরিয়ে ৩৭ পা দিয়েছেন। সাকিব তার জন্মদিনকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *