Sunday , May 26 2024
Breaking News
Home / Countrywide / এবার বিএনপিকে রাজ পথ দখল নিয়ে সতর্ক করলেন তথ্যমন্ত্রী

এবার বিএনপিকে রাজ পথ দখল নিয়ে সতর্ক করলেন তথ্যমন্ত্রী

নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজনৈতিক দলগুলো নিজেদের শক্ত অবস্থান তৈরী করতে চেষ্টা করছে। কিন্তু বিএনপি নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া নির্বাচনে অংশ নেবে না এবং এর দাবিতে আন্দোলন সংগ্রাম করছে দীর্ঘ দিন ধরে। তবে ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগ পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে সংবিধানের বাহিরে যেয়ে নির্বাচন সম্ভব নয়। সমস্যার সমাধান রাজ পথে হবে বলে জানিয়েছে দুটি দলের নেতারা। তবে বিএনপির আন্দোলনে কোনো ধরনের বাধা সৃষ্টি করতে চায় না আওয়ামীলীগ কিন্তু নৈরাজ্য করলে চুপ থাকবে না বলে দলটি পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। আওয়ামী লীগ রাজপথে নামলে অন্যদের খুঁজে পাওয়া যাবে না বলে মন্তব্য করে যা বললেন তথ্যমন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদ।

ওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ রাজপথের দল। নেতাকর্মীদের আমরা যদি সারাদেশের রাজপথে নামার ঘোষণা দেই তখন অন্য কাউকে আর খুঁজে পাওয়া যাবে।

সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে বিএনপি আওয়ামী লীগকে রাস্তায় পরীক্ষা দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে যে বক্তব্য দিয়েছে তার জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী ডা. হাছান মাহমুদ বলেছেন, আমরা রাজপথে মল্লযুদ্ধ করতে চাই না, আমরা আমাদের কর্মীদের সংযত হওয়ার নির্দেশনা দিয়েছি। আর বিএনপি তো রাজপথেই আছে এবং রাজপথে থাকতে গিয়ে তারা ২০১৩-১৪-১৫ সালে রাজপথের গাছপালা পর্যন্ত উপড়ে ফেলেছে, পুলিশ বক্স ভাঙচুর করেছে। আমরা চাই তারা একটি নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন করুক, যাতে সরকারের পুলিশ প্রশাসনসহ সবাই তাদের সহযোগিতা করবে এবং করছে।

তিনি বলেন, বিএনপি আসলে সংঘাতের রাজনীতি চায়। তাদের উদ্দেশ্য পুলিশের সঙ্গে সং/ঘর্ষ, মানুষের সঙ্গে সং/ঘর্ষ করা। তারা চায় যাতে আরও প্রা/ণহানি ঘটে। আমি কিছু ভিডিও ক্লিপ দেখেছি, যদিও এখনো চূড়ান্ত হয়নি কিন্তু অনেকেই বলেছে মুন্সিগঞ্জে যে ছেলেটি মা/রা গেছেন তিনি তাদেরই ইটের আঘাতে মা/রা গেছেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি যখন সমাবেশ করতে গিয়ে নিজেরা নিজেরা মারামারি করে, নিজেরা সমাবেশ পণ্ড করে, যখন পুলিশের ওপর হামলা পরিচালনা করে, জনগণের সম্পত্তির ওপর হামলা পরিচালনা করে ভাঙচুর করে, অগ্নিসংযোগ করে, তখন জনগণ তাদের প্রতিহত অতীতেও করেছে, ভবিষ্যতেও করবে। আর জনগণের সঙ্গে যদি আমাদের নেতাকর্মীরা থাকে বিএনপির তারা আর পালাবার পথ খুঁজে পাবে না। তাদের ‘খালি কলসি বাজে বেশি’ ধরনের হুমকি-ধামকি আমরা প্রায় সাড়ে ১৩ বছর ধরে শুনে আসছি। দেশে শান্তি, স্থিতি রক্ষা সরকারের দায়িত্ব। সেটি বজায় রাখতে সরকার যে ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন সেটি অত্যন্ত সংযতভাবে সবসময় করে আসছে।

নির্বাচন উপলক্ষে তথ্যমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনের আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল অতীতের চেয়ে সরকারের বিরুদ্ধে আরও সক্রিয় হবে, এটাই স্বাভাবিক এবং এটা গণতান্ত্রিক রীতিনীতি চর্চার অংশ। তাই কেউ যদি গণতান্ত্রিক রীতিনীতি মেনে আন্দোলন করে, সরকারের সমালোচনা করে, সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলে, তাতে আমাদের কোনো আপত্তি নেই।সেটি করতে গিয়ে যদি সাংঘর্ষিক রাজনীতি করে সেখানেই বিপত্তি।

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রীর চলমান যুক্তরাষ্ট্র সফর প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, এখন পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর সফর অত্যন্ত সফল হয়েছে। তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বিডেনের সাথে দেখা করেছেন এবং জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের সাথে দেখা করেছেন। অনেক দেশের সরকারপ্রধান, রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে সাক্ষাৎ ও বৈঠক হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী আগামী ২ অক্টোবর সেখান থেকে রওয়ানা হওয়ার কথা রয়েছে। আসার পর তিনি সবিস্তারে বলবেন, তবে আমরা দেখতে পাচ্ছি যে অত্যন্ত সফল একটা সফর হচ্ছে এবং এ কারণে যারা বিদেশিদের কাছে বারংবার ধর্না দেয় তাদের চেহেরাটা ফ্যাকাশে হয়ে গেছে।

প্রসঙ্গত, নির্বাচন সকল দলের অংশগ্রহন চায় আওয়ামীলী এবং জনগনের ভোটের মাধ্যমে সরকার ক্ষমতায় এটিই গনতান্ত্রিক ধারা বলে মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদ। তিনি আরাও বলেন, গনতান্ত্রিক ভাবে আন্দোলনকে সাধুবাদ জানাই আওয়ামীলীগ।

About Babu

Check Also

অবন্তিকার পর এবার একই পথে হাঁটল মীম

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আ/ত্মহত্যা করেছে। শিক্ষার্থীর নাম শারভীন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *