Sunday , May 26 2024
Breaking News
Home / Countrywide / একটি কারনেই আইজিপি হিসেবে আবদুল্লাহ আল মামুনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকার, জানা তার গেল মেয়াদকাল

একটি কারনেই আইজিপি হিসেবে আবদুল্লাহ আল মামুনকে নিয়োগ দিয়েছে সরকার, জানা তার গেল মেয়াদকাল

বাংলদেশের পুলিশের সব থেকে বড় পদটি হচ্ছে আইজির পদ। আর এই কারণেই এই পদনিয়ে সব সময় চলে থাকে আলোচনা। এ দিকে পুলিশের নতুন মহাপরিদর্শক (আইজিপি) হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন। বর্তমানে তিনি র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। পুলিশের শীর্ষ পদে বর্তমান আইজিপি বেনজীর আহমেদের স্থলাভিষিক্ত হবেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

জানা গেছে পুলিশের মহাপরিদর্শক নিয়োগ দেওয়া চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন এই পদে থাকবেন আগামী তিন মাস।

একই প্রজ্ঞাপনে এম খুরশীদ হোসেনকে র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে তিনি পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে অতিরিক্ত আইজিপি (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশনস) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। আদেশটি ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশ পুলিশের বর্তমান আইজিপি বেনজীর আহমেদের মেয়াদ ৩০ সেপ্টেম্বর শেষ হচ্ছে। কয়েক মাস ধরে পুলিশ বাহিনীর ভেতরে-বাইরে গুঞ্জন চলছিল যে চুক্তি অনুযায়ী পুলিশ প্রধান হিসেবে বেনজীর আহমেদের মেয়াদ বাড়ানো হবে না বা নতুন কেউ এলে। আসন্ন নির্বাচনের দৃশ্য। সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুনকে পুলিশ প্রধান করা হয়।

র‌্যাবের মহাপরিচালক অতিরিক্ত আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন শুরু থেকেই ৩১তম আইজিপি হওয়ার দৌড়ে ছিলেন। এছাড়া অতিরিক্ত আইজিপি এম খুরশীদ হোসেনের নামও ছিল জোর আলোচনায়। শেষ পর্যন্ত আব্দুল্লাহ আবদুল্লাহ আল মামুনকে পুলিশ প্রধান হিসেবে নিয়োগ দেয় সরকার।

পুলিশের একটি সূত্র জানায়, সামনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে সেনাবাহিনীতে ক্লিন ইমেজ ও সুনাম রয়েছে চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুনের। তাই তাকে আইজিপির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৯৬৪ সালের ১২ জানুয়ারি সুনামগঞ্জের শ্রীহেলা গ্রামের মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন আবদুল্লাহ আল মামুন।শুরু থেকেই তিনি ছিলেন বেশ মেধাবী একজন ছাত্র। আর এই কারণেই ১৯৮২ সালে বিসিএস (পুলিশ) ক্যাডারের ১৯৮৬ ব্যাচের কর্মকর্তা হিসেবে পুলিশের সহকারী সুপারিনটেনডেন্ট (এএসপি) হিসেবে যোগ দেন। ২০১৯ সালের মে মাসে তিনি অতিরিক্ত আইজিপি পদে পদোন্নতি পান। এর আগে তিনি ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি ছিলেন। এরপর তার কর্ম জীবনের সব থেকে বড় পদটি এবার পেতে যাচ্ছেন তিনি।

About Rasel Khalifa

Check Also

অবন্তিকার পর এবার একই পথে হাঁটল মীম

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আ/ত্মহত্যা করেছে। শিক্ষার্থীর নাম শারভীন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *