Saturday , May 25 2024
Breaking News
Home / National / জাতিসংঘের ভুল ধরে প্রধানমন্ত্রী পুত্র সজিব ওয়াজেদ জয়ের স্ট্যাটাস নিয়ে হৈচৈ

জাতিসংঘের ভুল ধরে প্রধানমন্ত্রী পুত্র সজিব ওয়াজেদ জয়ের স্ট্যাটাস নিয়ে হৈচৈ

বাংলাদেশের গুম নিয়ে বেশ কিছু দিন যাবৎ আলোচনা সমলোচনার নতুন ধারা শুরু হয়েছে। আর এই গুম নিয়ে এবার কথা বলা শুরু করেছে খোদ জাতিসংঘ। জাতিসংঘের দেওয়া বাংলাদেশে নিখোঁজ ৭৬ জনের তালিকা প্রশ্নবিদ্ধ বলে দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজিব ওয়াজেদ জয়।

তিনি বলেন, জাতিসংঘের একটি দল কীভাবে এত বড় ভুল করতে পারে? উত্তরটা সহজ, তারা ঘটনা যাচাই না করেই স্থানীয় বাংলাদেশ-ভিত্তিক এনজিওদের দেওয়া নিখোঁজ গল্পগুলোই প্রকাশ করেছে।

গত বৃহস্পতিবার রাতে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক পোস্টে প্রধানমন্ত্রীর ছেলে জয় লিখেছেন-
বাংলাদেশে ‘বলপূর্বক গুমের’ শিকার ৭৬ জনের তালিকা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। কিন্তু এই তালিকা আন্তর্জাতিক সংস্থার গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। তালিকায় থাকা ৭৬ জনের মধ্যে অনেকেই বাংলাদেশে বসবাস করছেন বলে জানা গেছে। সেখানে দুই ভারতীয় নাগরিকের নাম রয়েছে। আবার এখানে তালিকাভুক্ত পলাতক অনেকের নাম রয়েছে। যার কারণে জাতিসংঘের যেসব এনজিওর ওপর ভিত্তি করে প্রতিবেদন তৈরি করা হয়, খোদ জাতিসংঘের তথ্য সংগ্রহ পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

তালিকায় ২ জনের নাম ভারতের মণিপুর রাজ্যের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন নিষিদ্ধ ঘোষিত ইউনাইটেড ন্যাশনাল লিবারেশন ফ্রন্ট-ইউএনএলএফ-এর শীর্ষ নেতা। একজন সংগঠনের চেয়ারম্যান, অন্যজন মেজর পদমর্যাদার। তারা হলেন সানায়াইমা রাজকুমার ওরফে মেঘান এবং কিথেল্লাকপাম নভচন্দ্র ওরফে শিলাহিবা।

প্রশ্ন হলো- জাতিসংঘের একটি গ্রুপ কীভাবে এত বড় ভুল করতে পারে? উত্তরটা সহজ – তারা ঘটনা যাচাই না করেই শুধুমাত্র স্থানীয় বাংলাদেশ ভিত্তিক এনজিওদের দেওয়া অন্তর্ধানের গল্প প্রকাশ করেছে।

প্রসঙ্গত, গেলো এক দশকে বাংলাদেশ থেকে অনেকেই হয়েছে গুম। রাজনৈতিক নেতা কর্মী সহ অনেক সাংবাদিক রয়েছে এই তালিকায়। আর এই কারনে বিষয়টি এবার নজর এড়িয়েছে আন্তর্জাতিক মহলে। যার ফলে প্রশ্ন উঠছে অনেক।

About Rasel Khalifa

Check Also

জাহ্নবী কাপুরের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

মন্দিরের সিঁড়ির একপাশে অসংখ্য ভাঙা নারিকেল। তার পাশে থেকে হামাগুড়ি দিয়ে উপরে উঠছেন বলিউড অভিনেত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *