Sunday , May 26 2024
Breaking News
Home / Countrywide / অবশেষে সাফল্যের মুখ দেখলেন সেই বেলায়েত

অবশেষে সাফল্যের মুখ দেখলেন সেই বেলায়েত

ইচ্ছা থাকলেও অর্থনৈতিক কারনসহ নানা পারিপার্শ্বিক সমস্যার জন্য লেখা পড়া করতে পারেননি ৫৫ বছর বয়সী বেলায়েত শেখ। প্রবাল আগ্রহ নিয়ে তিনি আবার পড়াশুনা শুরু করেন। প্রস্তুতি নেন উচ্চ শিক্ষার এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরিক্ষায় অংগ্রহন করেন। কিন্তু বেশ কয়েকটি পরিক্ষা অংশ নিয়ে সফল না হলেও অবশেষে সাফল্যের দেখা পেয়েছেন তিনি।

অবশেষে সফলতার দেখা পেলেন গাজীপুরের ৫৫ বছর বয়সী বেলায়েত শেখ। বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে উত্তীর্ণ হয়েছেন তিনি। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কিছুটা সুযোগ-সুবিধা পেলেই ভর্তি হবেন এ বিশ্ববিদ্যালয়ে।

বেলায়েত শেখ সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টায় বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেন। দুপুর ২টায় ফলাফল প্রকাশিত হলে ৬৮ নম্বর পেয়ে উত্তীর্ণ হন তিনি।

এর আগে বেলায়েত শেখ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে ব্যর্থ হন। তবে সুযোগ-সুবিধা পেলে এবার বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়েই ভর্তি হবেন বলে দেশের একটি জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন তিনি।

বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে উত্তীর্ণ হয়ে উচ্ছ্বসিত বেলায়েত দেশের একটি জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, অনেক ব্যর্থতার পর আজ সফলতার মুখ দেখতে পেয়েছি। বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ৬৮ নম্বর পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছি আমি।’

তিনি আরও বলেন, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় কৃতকার্য হলেও ভর্তি নিয়ে সংশয়ে রয়েছি। বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় হওয়ায় ভর্তি ফি থেকে শুরু করে সেশন ফি অনেক বেশি হওয়ায় পড়াশোনা চালিয়ে যেতে অনেক টাকা-পয়সার প্রয়োজন। ভর্তি ফি থেকে সেশন ফি পর্যন্ত সুযোগ-সুবিধা দিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে লিখিত আবেদন করেছি। এখন তারা সম্মতি দিলে আমি ভর্তি হব ইনশাআল্লাহ।

বেলায়েত শেখ বলেন, আমার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে পারে একমাত্র বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ছাড়াও যদি কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান আমার পাশে দাঁড়ায় আমি উপকৃত হবো। আমি আমার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে চাই।’

১৯৬৮ সালে জন্ম নেওয়া উদ্যমী এই মানুষটির ছোটবেলা থেকেই পড়াশোনার প্রতি ছিল প্রবল আগ্রহ। প্রবল আগ্রহ থাকা সত্ত্বেও দারিদ্র্যের কারণে স্বপ্ন অধরাই থেকে যায়। ১৯৮৩ সালে এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন বেলায়েত। কিন্তু নানা প্রতিবন্ধকতার কারণে উচ্চশিক্ষা নেওয়ার স্বপ্ন জলাঞ্জলি দিতে হয় তাকে। ২০১৭ সালে ৫০ বছর বয়সে ভর্তি হন নবম শ্রেণিতে।

চলতি বছর বেলায়েত ঢাকা মেট্রোপলিটন টেকনিক্যাল কলেজ থেকে ৪.৫৮ জিপিএ নিয়ে উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি-ভোকেশনাল) পাস করেছে। এরআগে ২০১৯ সালে বাসাবোর দারুল ইসলাম আলিম মাদরাসা থেকে জিপিএ ৪.৪৩ পেয়ে মাধ্যমিক সমমান দাখিল (ভোকেশনাল) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন তিনি।

প্রসঙ্গত, চেষ্টা আর পরিশ্রম বয়সকেও হার মানিয়েছে তার প্রমাণ ৫৫ বছর বয়সী বেলায়েত শেখ। অবশেষে তিনি নিজের লক্ষে পৌছাতে পেরেছেন তবে এখনো সমস্যা রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

About Babu

Check Also

অবন্তিকার পর এবার একই পথে হাঁটল মীম

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আ/ত্মহত্যা করেছে। শিক্ষার্থীর নাম শারভীন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *