Wednesday , May 29 2024
Breaking News
Home / Countrywide / দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে গ্রহণযোগ্য ও অন্তর্ভুক্তিমূলক করাই বড় চ্যালেঞ্জ : টিআইবি

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে গ্রহণযোগ্য ও অন্তর্ভুক্তিমূলক করাই বড় চ্যালেঞ্জ : টিআইবি

বাংলাদেশের রাজনৈতিক ব্যবস্থা ব্যাপক হু/মকির মুখে পড়েছে। কারন দেশের সাংবিধানিকা প্রতিষ্ঠান গুলো আস্তে আস্তে দুর্বল ও অকার্যকর হয়ে পড়ছে। এভাবে চলতে থাকলে গনতন্ত্র মুখ থুবড়ে পড়বে। আর এই গনতন্ত্র ফিরাতে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন ব্যাবস্থ গুরুত্বপূর্ন বলে জানান ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর থেকে দেশের গণতন্ত্র রক্ষার প্রতিষ্ঠানগুলো ক্রমাগত দুর্বল হয়েছে বলে মনে করে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)।

সংস্থাটির মতে, গত ৫০ বছরেও বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক অগ্রগতিতে প্রত্যাশিত স্থানে যেতে পারেনি। আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে গ্রহণযোগ্য ও অন্তর্ভুক্তিমূলক করাই এখন বড় চ্যালেঞ্জ।

বৃহস্পতিবার ‘অন্তর্ভুক্তিমূলক নির্বাচন: গণতান্ত্রিক সুশাসনের চ্যালেঞ্জ উত্তরণে করণীয়’ শীর্ষক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে টিআইবি এ বক্তব্য তুলে ধরে।

১৫ সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস। দিবসটি উপলক্ষে টিআইবি এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান বলেন, বিশ্বব্যাপী গণতন্ত্র চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি। বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক অগ্রগতির সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু নানা প্রতিবন্ধকতার কারণে তা অর্জন করা সম্ভব হয়নি। গত দুই সংসদ নির্বাচন রাজনৈতিক মহলে একটি দলের একচেটিয়া ক্ষমতা প্রতিষ্ঠা করেছে। আগামী সংসদ নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক দলগুলো অংশগ্রহণ না করলে এর গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাবে।

গত দুই সংসদ নির্বাচনে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ভূমিকা নিরপেক্ষ ছিল না বলে মনে করেন ইফতেখারুজ্জামান। তিনি বলেন, নির্বাচনকালীন সরকারের ভূমিকার রূপরেখা চূড়ান্ত করতে হবে। নির্বাচনী সরকার যে নামেই ডাকুক না কেন, তা হতে হবে স্বার্থের সংঘাতমুক্ত ও নিরপেক্ষ। মমন্ত্রী ও সংসদ সদস্যদের স্বপদে থেকে নির্বাচন করার বিষয়টি রহিত করতে হবে।

নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বিষয়ে নির্বাচন কমিশন (ইসি) যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাতে জনমতের প্রতিফলন ঘটেনি বলে মন্তব্য করেন ইফতেখারুজ্জামান। তিনি বলেন, ইসিকে রাজনৈতিক, কারিগরি ও অর্থনৈতিক দিক থেকে ইভিএম ব্যবহারের সুবিধার পাশাপাশি ঝুঁকিগুলোও সতর্কতার সঙ্গে বিশ্লেষণ করতে হবে। আসন্ন সংসদ নির্বাচনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় ইসি যে রূপরেখা তৈরি করেছে তা চূড়ান্ত না হয়ে খসড়া হিসেবে বিবেচনা করা উচিত। সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টি চূড়ান্ত করতে হবে। চাপিয়ে দেওয়া কর্মপরিকল্পনা সুফল বয়ে আনবে না।

সংবাদ সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন টিআইবির গবেষণা ও নীতি বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ রফিকুল হাসান।

প্রসঙ্গত, দেশের গনতান্ত্রীক অবস্থা ফেরাতে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন গুরুপূর্ন যা একটি দেশের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে। আর সেটি যদি না হয় তবে দেশ হুমকির মুখ পড়বে বলে মন্তব্য করেন টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান।

About Babu

Check Also

অবন্তিকার পর এবার একই পথে হাঁটল মীম

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আ/ত্মহত্যা করেছে। শিক্ষার্থীর নাম শারভীন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *