Wednesday , May 29 2024
Breaking News
Home / International / রোগীর জীবন-মরণ প্রশ্ন,যানজটে রাস্তায় গাড়ি ফেলে তিন কিলোমিটার দৌড়ে হাসপাতালে সেই মানবিক ডাক্তার

রোগীর জীবন-মরণ প্রশ্ন,যানজটে রাস্তায় গাড়ি ফেলে তিন কিলোমিটার দৌড়ে হাসপাতালে সেই মানবিক ডাক্তার

ডাক্তার মানেই মানুষের সেবাদানকরি একটি নাম। রোগ থেকে বাঁচাতে কিংবা মানুষকে মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরিয়ে আন্তে সৃষ্টিকর্তার পরেই যাদের অবদান বেশি তারাই হলেন ডাক্তার। তবে এই বর্তমান দুনিয়াতে সেবা দেয়ার থেকে বেশি টাকার পিছনেই ছুতে থাকে ডাক্তাররা বেশি।কিন্তু তার পরেও দুনিয়াতে এমন অনেকেই আছে যারা হেটে থাকেন স্রোতের বিপরীতে।সাম্প্রতিক সময়ে এমনি একটি ঘটনার নজির ঘটলো ভারতে।তীব্র যানজটে আটকা পড়ে ব্যক্তিগত গাড়ি। ডাক্তার গাড়ি থেকে নেমে তিন কিলোমিটার দৌড়ে হাসপাতালে গেলেন। কারণ আর কিছুই নয়, রোগীর জীবন-মরণ প্রশ্ন। দ্রুত অস্ত্রোপচার করা উচিত।

এমন ঘটনায় প্রশংসায় ভাসছেন ভারতের ব্যাঙ্গালোরের এক সার্জন। তার দৌড়ের দৃশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

বেঙ্গালুরু ট্রাফিকের জন্য কুখ্যাত। এমনকি স্বল্প দূরত্বেও প্রায়ই ঘন্টা লাগে। ডাঃ গোবিন্দ নন্দকুমার সেখানকার মণিপাল হাসপাতালের একজন গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি সার্জন। গত ৩০ অগাস্ট তার জরুরী ল্যাপারোস্কোপিক গলব্লাডার সার্জারি করাতে যাচ্ছিলেন। কিন্তু সারজাপুর-মারাথাল্লি সড়কে ভারী যানজটে আটকা পড়েন।

ডাঃ নন্দকুমার জানতেন যে অস্ত্রোপচারে দেরি হলে রোগীর অপূরণীয় ক্ষতি হতে পারে। তাই দেরি করলেন না। প্রাইভেট কার থেকে নেমে তিন কিলোমিটার দৌড়ে অস্ত্রোপচার করেন। তিনি তার ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে সেই দৌড়ের একটি ভিডিও ক্লিপ পোস্ট করেছেন। ডঃ নন্দকুমার ভিডিওটির ক্যাপশন দিয়েছেন:

“আমি প্রতিদিন সেন্ট্রাল ব্যাঙ্গালোর থেকে মণিপাল হাসপাতাল, সারজাপুরে যাতায়াত করি, যা ব্যাঙ্গালোরের দক্ষিণ-পূর্বে অবস্থিত। আমি অস্ত্রোপচারের জন্য ঠিক সময়ে বাড়ি ছেড়েছিলাম। আমার দল প্রস্তুত ছিল। আমি পৌঁছানোর সাথে সাথে তারা অপারেশন করার জন্য প্রস্তুত ছিল। প্রচন্ড যানজটের কারণে আমি গাড়ি ছেড়ে দেবার সিদ্ধান্ত নিলাম এবং দুবার না ভেবে হাসপাতালের দিকে ছুটে গেলাম।’

ডাক্তার নন্দকুমারের দল রোগীকে এনেস্থেশিয়া দেওয়ার জন্য প্রস্তুত ছিল। অপারেশন থিয়েটারে পৌঁছানোর সাথে সাথেই অস্ত্রোপচার শুরু হয়। অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে এবং রোগীকে সময়মতো হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

ডাঃ নন্দকুমার মণিপাল হাসপাতালের গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি বিভাগে পরামর্শক হিসাবে কাজ করেন। রোগী দীর্ঘদিন ধরে পিত্তথলির রোগে ভুগছিলেন।

গত কয়েক সপ্তাহের ভারী বৃষ্টির কারণে, বেঙ্গালুরু জলাবদ্ধতা এবং যানজটের মুখোমুখি হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ কয়েকটি ভিডিওতে দেখা গেছে যে বেঙ্গালুরু-মইসুরু হাইওয়েতে দীর্ঘ জলাবদ্ধতার মধ্যে কয়েকশ যানবাহন আটকে আছে। মানুষ হেঁটে গন্তব্যে যাওয়ার চেষ্টা করছে। কিছু এলাকায় আটকে পড়া লোকজনকে নৌকায় করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

এদিকে এই মানবিক চিকিত্সক এর ভিডিওটি এখন ভাইরাল সবখানে।তার মতো এখন ডাক্তার এর প্রশংসায় এখন পঞ্চমুখ নেটিজেনর।

About Rasel Khalifa

Check Also

এ বছরের সবচেয়ে বড় দুর্ঘটনা: নৌকাডুবিতে ‘‘নিহত অথবা নিখোঁজ’’ ৭০

ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশের উপকূলে নৌকা ডুবির এক ঘটনায় ৭০ জনেরও বেশি রোহিঙ্গা ‌‌‘‘নিহত অথবা নিখোঁজ’’ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *