Saturday , May 25 2024
Breaking News
Home / Countrywide / মামুনের পর, এবার শিক্ষিকা হাফছাকে বিয়ে করে অনলাইনে সাড়া ফেলেছে ছাত্র রুবেল

মামুনের পর, এবার শিক্ষিকা হাফছাকে বিয়ে করে অনলাইনে সাড়া ফেলেছে ছাত্র রুবেল

বিগত কয়েক মাস আগে এক স্কুল শিক্ষিকাকে বিয়ে করে আলোচনায় আসে মামুন ও খাইরুন দম্পতি। তবে তাদের বিয়ে বেশিদিন টিকলো না কারণ শিক্ষিকা খাইরুনকে নিথর করার দায়ে মামুনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মামুনের পর এবার আর এক শিক্ষিকাকে বিয়ে করে সম্প্রতি আলোচনার শীর্ষ স্থানে নিজের নাম লিখিয়েছেন হাফছা ও রুবেল দম্পতি।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক হাফছা জাহান হিয়াকে বিয়ে করেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিয়া মোহাম্মদ রুবেল।

শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিউনিটি সেন্টারে বিয়ের অনুষ্ঠান হয়। এ জন্য একটি বড় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিয়েতে পাঁচ শতাধিক অতিথি উপস্থিত ছিলেন।
নবদম্পতিকে অভিনন্দন জানাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তাসহ ময়মনসিংহের রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরাও আসেন।

জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। শুক্রবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিউনিটি সেন্টারে হিয়ার সঙ্গে কৃষিবিদ হাফছার বিয়ে হয়। বিয়ের অনুষ্ঠানে ময়মনসিংহের রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, ছাত্রলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। কমিউনিটি সেন্টার সূত্রে জানা গেছে, বিয়ের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে পাঁচ শতাধিক অতিথিকে।

খুব ধুমধাম করে এই বিয়ে হয়েছিল। বৃহস্পতিবার তাদের হত্যা করা হয়। শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত বিয়েতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষক, প্রশাসনের কর্মকর্তাসহ আরও অনেকে আমন্ত্রিত হয়েছেন। তাদের প্রায় সবাই উপস্থিত ছিলেন। ময়মনসিংহের রাজনীতিবিদরাও তাদের শুভেচ্ছা জানাতে আসেন। কমিউনিটি সেন্টার সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ৫ শতাধিক অতিথি আপ্যায়নে ছিলেন। এর বেশি উপস্থিত ছিলেন।

অনেক মানুষ তাদের পরবর্তী দাম্পত্য জীবন যেন সুখের হয় এমন দোয়া করেছেন। এই বিয়েতে ছেলে ও মেয়ের পরিবারের কেউ দ্বিমত করে নাই বলে সংবাদ সূত্রে জানা যায়। এছাড়া তাদের বিয়েতে অনেক গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

About Nasimul Islam

Check Also

অবন্তিকার পর এবার একই পথে হাঁটল মীম

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আ/ত্মহত্যা করেছে। শিক্ষার্থীর নাম শারভীন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *