Sunday , May 26 2024
Breaking News
Home / Countrywide / খালেদা জিয়ার জন্য নামায পড়ে দোয়া করলেও, একটি কারনে খুব কষ্ট পান শামীম ওসমান

খালেদা জিয়ার জন্য নামায পড়ে দোয়া করলেও, একটি কারনে খুব কষ্ট পান শামীম ওসমান

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দীর্ঘ দুই বছরেরও অধিক সময় কারাভোগের পর শর্ত সাপেক্ষে জামিনে মুক্তি পান বাংলাদেশের তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। এই মুহুর্তে নিজ বাসায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। তবে বিএনপির এই নেত্রীর জন্য নামায পড়ে দোয়া করেন বলে দাবি করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান।

তিনি বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া আমার মায়ের মতো। তার কারণে আমি অনেক কষ্ট পেয়েছি, আমার ওপর হামলা হয়েছে, আমাকে বাড়ি ছেড়ে যেতে হয়েছে। তারপরও তার জন্য নামাজ পড়ে দোয়া করি। কারণ পিতা-মাতা এটাই শিক্ষা দিয়েছেন, নবীজির শিক্ষাও এই যে, যার দ্বারা আপনি নির্যাতিত হয়েছেন তার জন্য দোয়া করলে তা কবুল হবে।’

বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের টকশোতে অতিথি হিসেবে অংশ নিয়ে শামীম ওসমান এসব কথা বলেন। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন ও সিনিয়র সাংবাদিক অজয় ​​দাশগুপ্ত।

অনুষ্ঠানে শামীম ওসমান আরও বলেন, ‘জাপানের মতো উন্নত দেশে আমাদের বেড়ে ওঠার কথা ছিল। কিন্তু ঘাতকের দল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সাড়ে তিন বছরের বেশি সময় দেয়নি। আমি খুবই অবাক হয়েছি যে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কীভাবে বিএনপি-জামায়াতকে আলোচনায় বসার প্রস্তাব দিলেন। হয়তো তিনি বঙ্গবন্ধু কন্যা বলে। ২০১৩-১৪ সালে প্রধানমন্ত্রীর ফোনালাপের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়া কেমন প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছিলেন তা সবার মনে আছে।

আমার দিকে বাংলাদেশের সবচেয়ে শক্তিশালী গ্রেনেড নিক্ষেপ করা হয়। এ সময় খালেদা জিয়া বলেন, জাতির পিতার পরিবারের জন্য বিশেষ নিরাপত্তা আইন বাস্তবায়নের জন্যই এই হামলা। আমার দলের বিশজন ছেলে কিছুক্ষণের মধ্যেই চলে গেল। চন্দন, রতন পঙ্গু হয়ে গেল। এত কিছুর পরও যখন বিএনপি-জামায়াত মানবাধিকার ও গণতন্ত্রের জন্য সবকিছু দেয়, তখন অবাক লাগে।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি এখন দুই ভাগে বিভক্ত। আম্মা গোষ্ঠী নির্বাচনে যেতে চায়, যদিও তারা তা শিকার করতে পারেনি। অন্যদিকে ভাইয়া গ্রুপের ভাইয়া ১৫১টি আসন না পেলে দেশে ফিরতে পারবেন না। আমার কষ্ট হয় যখন দেখি বেগম জিয়া অসুস্থ কিন্তু তার বিখ্যাত ডাক্তার পুত্রবধূ, ব্যারিস্টার নাতনি তাকে দেখতে আসেন না। অথচ তারা বেগম জিয়ার নামে লন্ডনে বিলাসবহুল জীবনযাপন করছেন।

এদিকে এই মুহুর্তে জামিনে কারাগারের বাইরে রইলেও খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা দিন দিন আরও খারাপ হচ্ছে জানিয়ে তাকে অবিলম্বে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেয়ারও দাবি জানান বিএনপির নেতাকর্মীরা।

About Rasel Khalifa

Check Also

অবন্তিকার পর এবার একই পথে হাঁটল মীম

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আ/ত্মহত্যা করেছে। শিক্ষার্থীর নাম শারভীন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *