Sunday , May 26 2024
Breaking News
Home / Countrywide / নিখোঁজ ইয়াশাকে ৩ লাখ টাকা বিক্রিয় ঘটনায় এবার মুখ খুললেন মা নাজমা ( ভিডিও সহ )

নিখোঁজ ইয়াশাকে ৩ লাখ টাকা বিক্রিয় ঘটনায় এবার মুখ খুললেন মা নাজমা ( ভিডিও সহ )

মেয়ে নিখোঁজ হয়ে গেছে বলে দুইদিন আগে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে এক মা। সরকারের কাছে আকুতি মিনতি করে ওই মা জানায়, আমার মেয়েকে জীবিত উদ্ধার করে দিন।   সাম্প্রতিক ঘটে যাওয়া এই ঘটনার  দুইদিন পরে ওই মেয়েকে খুঁজে পাওয়া যায়। তাকে খুঁজে পাওয়া মাত্রই মেয়ের মায়ে বিরুদ্ধে নানা অভিযোগে বেরিয়ে  আসে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য। তার মা নাকি তাকে নানাভাবে নি/র্যাতন করতো। তাকে নাকি ৩ লাখ টাকায় তার মা বিক্রি করে দিয়েছে। এসব নিয়ে সংবাদমাধ্যমে তুমুল সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। এবার মেয়ের বক্তব্যের জবাবে মা সংবাদমাধ্যমে জানালেন, আমি আমার মেয়েকে বুকের কাছে রেখেছি, শ্লী/ লতাহানির প্রশ্নই আসে না, কখনোই না।

আত্মগোপনে থাকা কলেজ ছাত্রী যশা মৃধা সুকন্যা (১৮) এর দায়ের করা অভিযোগের প্রতিবাদে এ কথা বলেন তার মা নাজমা ইসলাম লাকী।

চ্যানেল ২৪-কে দেওয়া এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমার মেয়ে আমার সম্পর্কে খারাপ কথা বলেছে যে আমি তাকে বকাঝকা করেছি, মারধর করেছি। আমি অস্বীকার করব না যে আমি মাকে মেরেছি তবে এটি পড়াশোনার জন্য বা শোনার জন্য নয়। আমি এটাও বলতে পারি যে ৭ ম শ্রেনী থেকে আমি আমার মেয়ের গায়ে হাত দেইনি।

তিনি আরও বলেন, আমার মেয়েকে সব সময় বুকের কাছে রেখেছি। শ্লীলতাহানির প্রশ্নই আসে না।

ইয়াশার বিয়ের প্রস্তাব প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমার মেয়ের বিয়ের প্রস্তাব আসবে আমি জানব না, এটা কখনো হতে পারে না। সেরকম কিছু হলে জানতে পারব তার বাবা বিদেশে থাকেন কিনা। হ্যাঁ, আমি মাঝে মাঝে আমার বোনদের দুষ্টুমি করে বলতাম, সে ইন্টার পাশ করলেই তাকে বিয়ে করব, ইয়াশা চুপচাপ হাসতেন।

ইয়াশার মা বলেন, আমি মা, আমি কিছু চাই না, শুধু আমার মেয়ে আমার কাছে ফিরে আসুক। ইয়াশার প্রবাসী বাবাও চান তাদের একমাত্র সন্তান ফিরে আসুক।

এর আগে ইয়াশা চ্যানেল ২৪ কে বলেছিলেন যে তিনি দেশে ফিরতে চান না। সেখানে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন তিনি। যে কোনো সময় তাকে হত্যা করা হতে পারে বলে জানান তিনি। এমনকি তিনি বলেন, চাচা দিদারুল ইসলাম বিপুলের শ্লীলতাহানির কথা স্বীকার করেছেন।

 

তিনি আরও বলেন, ভয়ে রাতে ঘুমাতে পারিনি। আমি বালিশে চাপা পড়েছিলাম। আমি আমার নানীর বাড়িতে গেলে সেখানেও আমাকে মানসিক নির্যাতন করা হয়। নানু শুধু বলতো, বিয়েটা করো। সাড়ে তিন লাখ টাকা দেওয়া হবে, তাও কম নয়। আপনি চাইলে আরো দিতে পারেন। আমার মা আমাকে সাড়ে তিন লাখ টাকায় বিক্রি করছিলেন।

 

কারাগারে থাকা তার বন্ধু ইশতিয়াক সম্পর্কে ইয়াশা বলেন, সে আমার খুব ভালো বন্ধু, তার কোনো দোষ নেই। তারপরও তাকে কারাগারে রাখা হয়েছে।

ইয়াশা নামে এক কলেজ ছাত্রী ২৩ জুন নিখোঁজ হয়। মায়ের সাথে পরীক্ষার হলে প্রবেশ করার পর তার কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। ঘটনার দুই মাস পর চ্যানেল ২৪-এর মুখোমুখি। ইয়াশা। এর আগে গত ২০ আগস্ট নিখোঁজ শিশুকে ফিরে পেতে সংবাদ সম্মেলন করেন তার মা নাজমা ইসলাম লাকী।

এ ঘটনায় নিখোঁজ হওয়া হওয়া সেই ইয়াশার এক বন্ধুকে আটক করেছে পুলিশ।  অনেকে ধারনা করছে প্রেমিকের হাত ধরে পালিয়ে গিয়েছিল ইয়াশা।  তবে ইয়াশা দাবি করছে সে শুধুমাত্র তার একটা ভালো বন্ধু তাকে শুধু শুধুই আটক করা হয়েছে।  আমার মায়ের নি/র্যাতনের কারণে আমি ঘর ছেড়েছি।  আটককৃত ওই বন্ধুকে মুক্ত করার দাবিও জানান তিনি।

About Nasimul Islam

Check Also

অবন্তিকার পর এবার একই পথে হাঁটল মীম

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আ/ত্মহত্যা করেছে। শিক্ষার্থীর নাম শারভীন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *