Tuesday , February 27 2024
Breaking News
Home / Countrywide / যুক্তি দিয়ে হাসিনাকে জার্মানির হিটলারের সাথে তুলনা করলেন পিনাকী

যুক্তি দিয়ে হাসিনাকে জার্মানির হিটলারের সাথে তুলনা করলেন পিনাকী

বর্তমানে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা লুটিয়ে পড়েছে।  এমতাবস্থায় বিরোধী দলের অনেক রাজনৈতিক নেতাবৃন্দরা বিতর্কিত মন্তব্য করছেন।  তারই মধ্যে এবার পিনাকী ভট্টাচার্য এর বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল সাড়া ফেলেছে।  পিনাকী ভট্টাচার্য তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অবস্থা নিয়ে আলোচনা করেছেন। 

তিনি লিখেছেন, দেশের খারাপ অর্থনৈতিক অবস্থার কথা বলবেন, আবার কেউ কেউ বলবেন, দেশের দুর্দশা নিয়ে খুশি কেন? মনে হচ্ছে আমি কষ্টে আছি।

আপনি এখনও দুর্দশা দেখেননি। অর্থনৈতিক অবস্থা কতটা খারাপ তা আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না। শ্রীলঙ্কার অর্থনীতি ছোট, বাংলাদেশের অর্থনীতি শ্রীলঙ্কার চেয়ে অনেক বড়। জনসংখ্যা বহুগুণ। এত লোকের ন্যূনতম দৈনিক চাহিদা মেটাতে অনেক টাকা ও সম্পদ লাগে।

আমার ইউটিউব কমেন্ট বক্স, ফেসবুকে কেউ কেউ এমন অদ্ভুত মন্তব্য করে যে অবাক হতে হয়। কেউ কেউ বলছেন, বাংলাদেশ বিশেষজ্ঞ বাড়াবে। যেন ইচ্ছামতো রপ্তানি বাড়ানো যায়। বাংলাদেশের রপ্তানির ৮৩% পোশাক। আপনি আপনার পোশাক অর্ডার বাড়াতে পারেন? রপ্তানি বাড়ে আমদানি? কোথায় কি রপ্তানি করবেন? আপনার প্রধান রপ্তানি বাজার পশ্চিমে। পশ্চিম এখন মন্দা। আপনার পোশাকের অর্ডার কমে গেছে। আর রপ্তানি বাড়বে বলে মনে করেন? এটা একটা অদ্ভুত ব্যাপার।

কেউ কেউ বলছেন যে বাংলাদেশ বিলাস দ্রব্যের আমদানি কমিয়ে বিলাস দ্রব্য আমদানি করে তার মোট আমদানির 2% এরও কম করবে। প্রায় তেরো বিলিয়ন ডলারের ঘাটতি কোথায় পাবেন? তোমাকে কে দেবে? আপনি কি ঋণ নেন? আপনি জানেন না যে আপনি কারও কাছ থেকে বছরে 13 বিলিয়ন ডলার পাবেন না।

 আপনি অনেক লোককে জিজ্ঞাসা করলেও আপনি পাবেন না। অসম্ভব আমরা চীন থেকে অনেক ঋণ নিয়েছি। এত বছর ধরে আমরা মোট কত ঋণ নিয়েছি তা কি জানেন? সাড়ে সাত বিলিয়নেরও কম। বাংলাদেশের মোট ঋণের পরিমাণ এখন পর্যন্ত প্রায় ষাট বিলিয়ন ডলার। এবং আপনি এক বছরে তার এক পঞ্চম ঋণ চান। শুধু তাই নয়, আগামী বছরেও তার একই পরিমাণ টাকা লাগবে।

এই টাকা পাবেন না। লিখুন আপনি যদি এই মৌলিক গণনা না জানেন তবে আপনি এটি করতে পারবেন না। যদি আপনার কাছে ডেটা না থাকে তবে আমার বলার কিছু নেই।

ফ্যাসিবাদ জার্মানিকে যে ক্ষতি করেছে তা কাটিয়ে উঠতে জার্মানি ২০২০ সাল পর্যন্ত সময় নিচ্ছে৷ জার্মানির সাধারণ মানুষের দোষ ছিল না। কিন্তু হিটলারের পাপের কাফফারা দিয়েছিল সাধারণ মানুষ। বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ হাসিনার ফ্যাসিবাদের প্রায়শ্চিত্ত করবে। অনেকদিন চলবে। হাসিনার ফ্যাসিবাদ বাংলাদেশকে ধ্বংস করে দেবে। এভাবেই ফ্যাসিবাদের বিদায় নেবে। ইতিহাস সাক্ষী।

উল্লেখ্য, পিনাকী এমন  পোস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এর আগেও অনেক বার করেছেন। তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ফ্রান্সে বসেই বাংলাদেশের অবস্থা সম্পর্কে পোস্ট করে থাকেন । সোশ্যাল মিডিয়ায় তার বিপুল পরিমানের ফলোয়ার রয়েছেন যারা সর্বদা তাকে সমর্থন করেন।

 

About Nasimul Islam

Check Also

স্বামীকে ‘দুলাভাই’ পরিচয় দেওয়া সেই যুবলীগ নেত্রী রিমান্ডে

জালিয়াতির মাধ্যমে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে পাবনা জেলা যুব মহিলা লীগের সদস্য মিম খাতুন ওরফে আফসানা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *