Sunday , March 3 2024
Home / opinion / ড্রয়িং রুমের শেখ হাসিনার সাথে এই হাসিনা মিলবে না : অজয়

ড্রয়িং রুমের শেখ হাসিনার সাথে এই হাসিনা মিলবে না : অজয়

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর নেতৃত্ব এর প্রসংশা করেছে পাকিস্থানের গনমাধ্যম। তবে শুধু পাকিস্তান নয় এশিয়ার বিভিন্ন দেশ বাংলাদেশের উন্নয়নে বেশ বিস্মিত এবং বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কর্মকান্ড নিয়ে তারা রিতিমত অবাকই হচ্ছে এমনটা তাদের দেশের গনমাধ্যম থেকে জানা যাচ্ছে।

পাকিস্তানের স্বনামধন্য দ্য এক্সপ্রেস ট্রিউবনে বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনা বিষয়ে একটি নিবন্ধ ছাপা হয়েছে। কেমব্রিজ স্নাতক সাহেবজাদা রিয়াজ নূরের এই ফিচারের নাম, বাংলাদেশের নেতৃত্ব থেকে শিখতে হবে। এ নামটাই বলে দিচ্ছে শেখ হাসিনার বাংলাদেশ এখন কোথায় দাঁড়িয়ে। নিবন্ধটির মূল বিষয় দুই দেশের তুলনামূলক আলোচনা। ১৯৭০ সালে পাকিস্তানের তুলনায় ৭৫ শতাংশ দরিদ্র বাংলাদেশ এখন পাকিস্তানের চাইতে ৪৫ শতাংশ ধনী দেশ। ৭০ সালে বাংলাদেশের জনসংখ্যা ছিল পাকিস্তানের চাইতে এক কোটি বেশি। এখন বাংলাদেশের প্রায় সতের কোটি জনসংখ্যার বিপরীতে পাকিদের সংখ্যা ২৩ কোটি।

বাণিজ্যে বসতে লক্ষী বলে একটা কথা আছে। এখন বাংলাদেশের রপ্তানি ৪৭ বিলিয়ন ডলার আর পাকিস্তানের ২৮ বিলিয়ন ডলার। পরিসংখ্যানের মাথা ভারী হিসাব থাক। নারী শিক্ষা, সমাজ উন্নয়ন ও নারীর ক্ষমতায়নে পাকিস্তান থেকে যোজন যোজন এগিয়ে বাংলাদেশ। সবচেয়ে বড় বিষয় দুনিয়ায় এই আকালের কালেও আমাদের টাকার কাছে মার খেয়ে পাকি রুপি লজ্জায় মুখ লুকিয়ে বাঁচতে চাইছে।

এতো কথা লিখলাম একটি কারণে। কথায় কথায় শেখ হাসিনার নিন্দাও সমালোচনা করা সুধিজনেরা এসব জেনেও কানে তুলা মুখে কুলুপ এঁটে বসে আছেন। এ কথা বলি না দেশে সুখের নহর ধারা বয়ে যাচ্ছে। এমনও না যে গণতন্ত্র, আইনের শাসন তার দায়িত্ব পালন করছে যথাযথ ভাবে। কিন্তু সবকিছুর দায় কি নেতার? আপনাদের কারো কারো কথা শুনলে মনে হয়, গ্রামের চৌকিদার থেকে শহরের পুলিশ সবার দায়ভার শেখ হাসিনার।

যে যেখানে চুরি ডাকাতি করছে সব তিনি জানেন। এই এক স্বভাব। বিশেষত বিশেষজ্ঞ নামধারী আর শিক্ষিত নামের মধ্যবিত্তদের ড্রয়িং রুম ও আড্ডার যে শেখ হাসিনা তার সাথে এই হাসিনা মিলবে না। কারণ এরা চোখ থাকিতে অন্ধ। এদের মনের কোনায় কোনায় যে খোয়াব, যে তালেবান তাদের গুরু পাকিস্তান বলছে শেখ হাসিনার কাছেই শিখতে হবে তাদের। এ লেখা পড়ে যা ইচ্ছে বলতে পারেন। দালাল ডাকতে পারেন। কিন্তু সত্য অস্বীকার করতে পারবেন না। কোনোদিন কোনো তদ্বির বা মোসাহেবি করিনি। করবোও না। শেখ হাসিনার এই নেতৃত্বই বাংলাদেশকে এগিয়ে দিয়েছে, এগিয়ে রেখেছে এটা জানে বলেই সুশীলরা মুখে বললেও নিজেদের সুখ সমৃদ্ধির কারণেই পথে নামে না। Because every one knows Shekh Hasina, who is one and only.

উল্লেখ্য,বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে নানামুখি উন্নয়ন করে চলেছে তবে কাঙ্খিত উন্নয়নের মাঝেও কিছু কিছু প্রতিবন্ধকতাও ছিল তবে সব কিছু ছাপিয়ে বাংলাদেশের উন্নয়ন নজর কেড়েছে বিশ্বের অনেক দেশের

About Rasel Khalifa

Check Also

ম্যারিকোর শেয়ারের দাম পড়া থামতেছে না: পিনাকী

ভারত গনতন্ত্রের পক্ষ না নিয়ে ১৪ ও ১৮ মতো ২৪ সালে আওয়ামীলীকে ক্ষমতায় রাখার সমর্থন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *