Thursday , February 22 2024
Breaking News
Home / Countrywide / নিজের বোনের সাথে দীর্ঘদিন ধরে খারাপ কাজ, বিপাকে ঐ নারীর স্বামী

নিজের বোনের সাথে দীর্ঘদিন ধরে খারাপ কাজ, বিপাকে ঐ নারীর স্বামী

সাম্প্রতিক সময়ে কুমিল্লার একটি ঘটনা দেশজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে, সেখানে দীর্ঘদিন যাবৎ এক ২৪ বছর বয়সী এক যুবতীকে তার আপন বড় ভাই খারাপ কাজ করে চলে আসছে এমন ধরনের অভিযোগ ওঠে উঠেছে। ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর ওই ভুক্তভোগী নারীর স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন অভিযুক্ত ব্যক্তি। আলোচিত এই ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লা জেলার লাকসাম উপজেলার একটি এলাকায়। জানা গেছে, ঘটনাটি পরস্পরের বিরুদ্ধে দোষারোপের কারণেও হতে পারে।

ওই নারীর স্বামী জানান, চলতি বছরের ১৮ মার্চ তাদের বিয়ে হয় পারিবারিকভাবে। গত ৮ মে রাতে ওই নারী তার স্বামীকে জানান, তার ভাই তাকে দীর্ঘদিন ধরে খারাপ কাজ করে আসছে। এই ধরনের কাজের পর তিনি বেশ কয়েকবার অসুস্থ হয়ে পড়েন।

এ ঘটনা শুনে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন ঐ নারীর স্বামী। পরদিন (৯ মে) সকালে তার স্ত্রী তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে মামলা করার আগ্রহ প্রকাশ করেন। দ্ব”ন্দ্ব এড়াতে ভি”কটি/মের স্বামী মামলা না করে তার স্ত্রীর স্বীকারোক্তি ভিডিও ধারণ করে। এরপর ওই দিন সকাল ৯টার দিকে তিনি শ্বশুর বাড়ি থেকে বের হন।

শ্বশুরবাড়ির অন্য সদস্যরাও বিষয়টি স্বীকার করে বিষয়টি মেনে নিতে বলেন। এরপর লোকটি আলেমদের পরামর্শে তার স্ত্রীকে তার পিতার বাড়ির সাথে সাময়িক সম্পর্ক ত্যাগ করে তার বাড়িতে আসতে বলে। তার স্ত্রীও তার কথায় সায় দেন।

ঘটনার একদিন পর ঐ ভুক্তভো”গী নারী তার স্বামীকে ফোন করে জানায় যে তাকে স্বীকারোক্তি বদলানোর জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে। তিনি তার স্বামীকেও বলেছিলেন যে তিনি “সামাজিক কারণে” তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে কথা বলতে পারেন না।

মামলাটি ঐ নারীর স্বামীর নামেই হয়।

ওই নারীর স্বামী বলেন, “উল্টো শ্বশুরবাড়ির লোকজন আমাকে অপবা”দ দিচ্ছিল এবং আমার ও আমার পরিবারের মানহানি হচ্ছিল। এসব ঘটনার কারণে আমি চারদিন হাসপাতালে ভর্তি ছিলাম। ২৩ জুন অভিযুক্ত খারাপ কাজ করা ব্যাক্তি (স্ত্রীর বড় ভাই) মামলা করেন।

“আমি বিষয়টি এলাকার ইউপি সদস্য ও চেয়ারম্যানকে জানিয়েছি। কিন্তু মামলা থাকায় তারা আদালতের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করতে বলেন। মামলায় খারাপ কাজ করা ব্যক্তির অভিযোগ, আমি তার বোনকে নি”র্যাত/’ন করেছি। কিন্তু উল্লেখিত তারিখে আমি বাড়িতে ছিলাম না। আমার স্ত্রীও তার বাবার বাড়িতে ছিল।”

ওই ব্যক্তি বলেন, “১৪ জুলাই পুলি’শ আমাকে গ্রেপ্তা’র করে। আমি ২০ জুলাই কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছি। আমি আদালতে প্রমাণ পেশ করেছি যে, আমার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ মিথ্যা। আমার নথি সত্য প্রমাণিত হওয়ায়, আদালত মাম’লাটি খারিজ করে দেয় এবং ২৪ জুলাই আমাকে মুক্তি দেয়। এটা প্রমাণিত হয় যে অভিযুক্ত তার বোনকে খারাপ কাজ করেছে। এরপর তিনি স্ত্রীকে ডিভোর্স দেন।

কে কি বলছে?

ভু”ক্তভোগীর স্বামী একজন ব্যবসায়ী। তিনি যে এলাকায় ব্যবসা করেন সেখানকার বাসিন্দা আলমগীর হোসেন বলেন, “সমস্যা পারিবারিকভাবে সমাধান করতে বলা হয়েছিল। তিনি (ভি”কটিমের স্বামী) মেয়েটিকে নিয়ে সংসার করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তারা তার বিরু’দ্ধে মামলা করে। অভিযুক্ত ব্যক্তি ভালো নয়, এলাকার মানুষও তাই বলে।

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্তের মোবাইল ফোনে কল করা হলে তিনি প্রথমে তার বোনের ভিডিও রেকর্ড ও লিখিত অভিযোগ কোথায় পাওয়া গেছে তা জানতে চান। তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ মিথ্যা দাবি করে তিনি বলেন, “সব অভিযোগ মিথ্যা। তাই তাদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেছি।”

মামলা খারিজ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “আমার বোন কাবিনের টাকা চাওয়ায় তার স্বামী অস্বীকৃতি জানায়। এ নিয়ে মামলা হয়েছে। এর বেশি কিছু নয়।” অভিযুক্তের দাবি, “১০ ভাই বোনের মধ্যে সে সবার ছোট। আমি আমার বোনের সাথে এমন কাজ করবো, কেউ বিশ্বাস করবে না!

ভিক”টিমের মোবাইল ফোনে কল করা হলে পারভেজ নামে এক ব্যক্তি দাবি করেন, “সে তার বড় ভাই। আদালতে মাম’লাটি খারিজ হয়ে যায়। এটা নিয়ে আর কোনো কথা নেই।”

ফারুক আহমেদ যিনি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হিসেবে রয়েছেন, তিনি বলেন, ‘ছেলে পক্ষের তরফ থেকে আমার কাছে বিষয়টি খুলে বলেছিল। পরে আমি বিষয়টি মীমাংসা করার জন্য মেয়ে পক্ষকে সাথে নিয়ে একসাথে বসার জন্য তাদেরকে জানিয়েছিলাম। কিন্তু মেয়ে পক্ষ থেকে আমার কথায় কর্ণপাত না করে তারা থানায় গিয়ে মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় স্বামীকে কিছুদিন আটক রাখলেও তাকে পরবর্তীতে সেখান থেকে খালাস দেয়া হয়।’

About bisso Jit

Check Also

এবার মুশতাকের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুললেন তিশার মা

তিশা ও খন্দকার মোশতাক আহমেদের বিয়ে নিয়ে প্রথমবারের মতো মিডিয়ার সামনে এলেন সিনথিয়া ইসলাম তিশার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *