Thursday , February 22 2024
Breaking News
Home / Countrywide / এবার সংবাদ সম্নেলনে কান্নায় ভাষালেন শেখ হাসিনা, জানা গেল কারণ

এবার সংবাদ সম্নেলনে কান্নায় ভাষালেন শেখ হাসিনা, জানা গেল কারণ

দেশের জন্য এবং দেশের মানুষের জন্য আজীবন অক্লান্ত পরিশ্রম করে দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু মুজিবুর রহমান।  তারই আদর্শ বুকে নিয়ে দেশের জন্য লড়ে যাচ্ছেন বর্তমান ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধ কন্যা শেখ হাসিনা। তবে তার ধারণা বর্তমানে অনেক রাজনৈতিক দল রয়েছে যারা তার পিছনে উঠে পড়ে লেগেছে।  তাকে ক্ষমতাচ্যুত করার জন্য বিভিন্ন রকমের ষড়যন্ত্র মূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে ।

সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আজ এটা প্রমাণিত সত্য যে, আওয়ামী লীগ ছাড়া বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে কেউ কাজ করেনি। এটা করবেন না যারা অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে তারা কিভাবে ক্ষমতার চেয়ার দখল করা যায় সেই চিন্তায় ব্যস্ত। 

এটা আমাদের জন্য বড় কথা নয়। ক্ষমতা আমার কাছে জনগণের সেবা করার সুযোগ। তাই ক্ষমতা থাকলে আছে, না থাকলে নেই। দেশের মানুষের জন্য কাজ করার সুযোগ থাকলে যা সুবিধাজনক। আর সেই সুযোগকে যথাসম্ভব কাজে লাগান। আমি আবার সেইভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা তৃণমূলের মানুষের উন্নতি ও পরিবর্তনের জন্য কাজ করছি, এভাবেই আমাদের যাত্রা শুরু। আমার বাবা গ্রামের সাধারণ গরিব মানুষের জন্য সারাজীবন কষ্ট করেছেন। কত অত্যাচার সহ্য করেছেন? জেলে খেটেছেন। তাকে ঝুলিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়। তবে এই মানুষগুলোর ভাগ্যের পরিবর্তন করতে চান তিনি। আর সেটাই আমরা করছি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করেও আমাদের কঠোর হতে হবে। সংরক্ষণ করতে হবে। এক ইঞ্চি জমি যাতে অনাবাদি না থাকে সে ব্যবস্থাও নিতে হবে। কারণ ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের সাথে সাথে এটি করবেন না। তারপর এসব নিষেধাজ্ঞা, পাল্টা নিষেধাজ্ঞা। এই অনুমোদনের পর সব জিনিসের দাম বাড়ছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই যুদ্ধে কারা লাভবান হচ্ছে জানি না। যারা অস্ত্র তৈরি করে তারাই লাভবান হয়। আর সাধারণ মানুষ মারা যাচ্ছে। ছোট বাচ্চা থেকে শুরু করে সবারই আজ কী অমানবিক জীবন! এটাই সবচেয়ে দুঃখের বিষয়। মনুষ্যসৃষ্ট বিপর্যয় আসে…আন্তর্জাতিক ধাক্কা।

তিনি বলেন, সবাইকে বলছি। এক ইঞ্চি জমিও যেন না পড়ে। আপনি যা পারেন রাখুন. একটি মরিচ উদ্ভিদ রোপণ এছাড়াও দরকারী। এটা শুধু যে আমরা সবাই এটা করতে. সবাই এটা করা উচিত. আমরা যদি নিজেরাই উৎপাদন করে খাদ্য বজায় রাখতে পারি, তাহলে আমাদের ভবিষ্যৎমুখী হতে হবে না। যে আমাদের জন্য সবচেয়ে দরকারী হবে. এ বিষয়টি মাথায় রেখে আমরা আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখছি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা শুধু উপরে যাচ্ছিলাম। কিন্তু এর মধ্যে প্রথম এসেছে করোনা। তারপর যুদ্ধ। তারপর নিষেধাজ্ঞা। পারস্পরিক নিষেধাজ্ঞা। যার কারণে সারা বিশ্ব আজ এক কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এটাই বাস্তবতা. তারপরও বাংলাদেশ ভালো আছে। আমরা কম খরচে এক কোটি মানুষকে খাবার দিচ্ছি। কেউ যেন কষ্ট না পায় সেটাই আমাদের প্রচেষ্টা। সেটাই আমরা করছি। আমরা সেই প্রচেষ্টা নিচ্ছি। আমি এটা করব।

১৫ আগস্ট ভাষণ দিতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ১৫ আগস্ট যারা মারা গেছেন- তাদের দাফন হয়নি। কিন্তু আব্বার মরদেহ যখন টুঙ্গিপাড়ায় নিয়ে যাওয়া হয়, তখন সেখানকার মাওলানা সাহেব এবং আমাদের মধ্যে কয়েকজন জোর করে বলেন যে আমরা… আর্মি হেলিকপ্টার সরাসরি সেখানে লাশ নিয়ে যায়। তারা কোনো না কোনোভাবে কবর খুঁড়ে কাদা নিয়ে ফিরে আসবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের মসজিদের ইমাম হিসেবে তারা সবাই বলেন, এটাকে যদি শহীদের মৃত্যু মনে করেন, তাহলে ওইভাবে কবর দিতে পারেন। কিন্তু একজন মুসলমানের লাশ- একটু দাফন করা দরকার। সমস্ত এলাকায় কারফিউ ছিল। সব বন্ধ তখন টুঙ্গিপাড়ায় কোনো দোকান ছিল না। ওই পাটের বাজারে যেতে হতো। তারপর তিনি (বঙ্গবন্ধু) রেডক্রসের কাপড় এনেছিলেন যা তিনি সাধারণ মানুষের মধ্যে বিতরণ করতেন এবং এর হেম ছিঁড়ে ফেলতেন… কিন্তু তিনি তা নিয়েছিলেন। মানুষের কাছ থেকে কিছু নেননি। আর কিছু নেয়নি। তার কাফন সেই লাল ক্রস কাপড়ের সাথে। এটাই বাস্তবতা. এবং আমরা যারা মারা গেছে তাদের কিছুই করা হয়নি। বনানী কবরস্থানে যে অবস্থায় ছিল সেই মাটি দেওয়া হয়েছে।

আসন্ন আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন বিরোধী দলের রাজনৈতিক নেতারা তাদের রাজনৈতিক কার্যক্রম শুরু করে দিয়েছেন।  এবার বর্তমান ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগকে ক্ষমতাচ্যুত করার জন্য বিভিন্ন রাজনৈতিক দল একত্রিত হয়েছে।  অন্যদিকে নিজেদের ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার জন্য আওয়ামী লীগ সরকার নিজ জায়গা থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন । তাদের দাবি জনগণ তাদের সাথে রয়েছে ।

About Nasimul Islam

Check Also

এবার মুশতাকের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুললেন তিশার মা

তিশা ও খন্দকার মোশতাক আহমেদের বিয়ে নিয়ে প্রথমবারের মতো মিডিয়ার সামনে এলেন সিনথিয়া ইসলাম তিশার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *