Monday , March 4 2024
Breaking News
Home / Entertainment / আবারো সমালোচনার শিকার আমির খান, মায়ের বয়স ৪০ হলে ছেলের বয়স কিভাবে ৫৭, প্রশ্ন নেটিজনদের

আবারো সমালোচনার শিকার আমির খান, মায়ের বয়স ৪০ হলে ছেলের বয়স কিভাবে ৫৭, প্রশ্ন নেটিজনদের

বলিউডের ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ খ্যাত তারকা আমির খান। কিছুদিনের মধ্যেই মুক্তি পাবে তার পরবর্তী ছবি ‘লাল সিং চাড্ডা’। কিন্তু তার আগেই নেটিজেনদের একাংশ বহুল প্রতীক্ষিত সিনেমাটি বয়কটের ডাক দিয়েছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে আমিরের একটি পুরনো সাক্ষাৎকার। আর সেই ভিডিওকেই কেন্দ্র করে এই বয়কটের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বলে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে জানা যায়।

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা আমির খানের পরবর্তী সিনেমা ‘লাল সিং চাড্ডা’। যেটি চলতি মাসেই মুক্তি পাবে। তবে ছবিটি মুক্তির আগেই তা নিয়ে শুরু হয়েছে তুমুল বিতর্ক। এই সিনেমায় আমিরের মায়ের ভূমিকায় দেখা যাবে মোনা সিংকে। মোনার বয়স আসলে ৪০ বছর, আর আমিরের বয়স ৫৭। সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে আলোচনা-সমালোচনা। কেউ কেউ কাস্টিং নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। অনেকে এটা নিয়ে মজাও করছেন। অবশেষে এ বিষয়ে নীরবতা ভাঙলেন আমির খান। বলিউডের ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ খ্যাত এই তারকা পাল্টা প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেন, একজন সৃজনশীল মানুষ হিসেবে আমি প্রশ্ন করি, আমি যদি ১০৩ বছরের বৃদ্ধের চরিত্রে অভিনয় করি, তাহলে কি ভুল হবে? যদিও আমার বয়স ৫৭।

কেন এমন যুক্তি? অভিনেতাদের আবার বয়স কত? অভিনেতাদের মধ্যে সবচেয়ে বড় কথা হল তাদের চরিত্রে যে বয়স দেখানো হবে তা উপযুক্ত হবে। মোনা সিংয়ের প্রশংসা করে তিনি বলেন, কী আলোচনা করছেন? এটাই মোনা সিং-এর চমক। দেখলেই মনে হবে তাকে যুবতী দেখাচ্ছে। আবার বুড়ো মনে হবে। এটাই তার বিস্ময়। তার বিস্ময় কেড়ে নেয়। খুব খারাপভাবে করছে। আমি মোনার জায়গায় থাকলে অস্বস্তি বোধ করতাম। এর আগে থ্রি ইডিয়টস’ ছবিতে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল আমির ও মোনা সিংকে। সিনেমায় আমিরের প্রেমিকের বড় বোনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন মোনা। লাল সিং চাড্ডা’ হলিউড মুভি ‘ফরেস্ট গাম্প’-এর হিন্দি রিমেক। আমির-মোনা সিং ছাড়াও সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন কারিনা কাপুর, নাগা চৈতন্য প্রমুখ। ছবিটির পরিচালক ‘সিক্রেট সুপারস্টার’ খ্যাত পরিচালক অদ্বৈত চন্দন।

উল্লেখ্য, লাল সিং চাড্ডা ছবিতে আমির ছাড়াও অভিনয় করেছেন কারিনা কাপুর, মানা সিং, নাগা চৈতন্য প্রমুখ। ছবিটির পরিচালক সিক্রেট সুপারস্টার খ্যাত পরিচালক অদ্বৈত চন্দন। ভারতের প্রায় ১০০টি লোকেশনে এই ছবির শুটিং হয়েছে। ছবিটির শুটিংও হয়েছে তুরস্কে। ছবিটি প্রযোজনা করছে আমির খানের প্রোডাকশন হাউসের সাথে ভায়াকম। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ১১ আগস্ট মুক্তি পাবে ছবিটি।

 

 

About Syful Islam

Check Also

গুরুত্বর অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে অভিনেত্রী মৌসুমী

উপস্থাপিকা মৌসুমী মৌ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তিনি নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর জানিয়েছেন। মৌ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *