Wednesday , February 28 2024
Breaking News
Home / Countrywide / ৫০ বছরে ৫৮টি বিয়ে করার রেকর্ড, নিজেই জানেন না সন্তানের সংখ্যা, জানা গেল বিস্তারিত

৫০ বছরে ৫৮টি বিয়ে করার রেকর্ড, নিজেই জানেন না সন্তানের সংখ্যা, জানা গেল বিস্তারিত

মানুষ বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন কারনে তাদের কর্ম কান্ডের মাধ্যমে রেকর্ড গড়ে থাকেন। তবে এবার এক ব্যাক্তি তার জীবনে বিয়ের মাধ্যমে রেকর্ড গড়েছেন। তিনি তার বিবাহিত জীবনে প্রায় ৫০ বছরে ৫৮টি বিয়ে করে এই রেকর্ড গড়েছেন। এই আলোচিত ব্যাক্তি একজন আরবে ব্যাবসায়ী।

গুণে গুণে ৫৮টি বিয়ে করেছন এক ব্যক্তি। নিজের বিয়ে করা এতোজন স্ত্রীর নামও মনে নেই তার। এমনকি নিজের ছেলে মেয়ে কতজন সেই সংখ্যাও বলতে পারেননা নিশ্চিতভাবে তিনি। বিয়ের রেকর্ড করা এই ব্যক্তির নাম সালাহ আল-সায়েরি। তিনি একজন আরব ব্যবসায়ী। আলোচিত এই ব্যক্তি নিজের প্রথম বিয়ে করেছেন মাত্র ১৪ বছর বয়সে। এরপর থেকে প্রায় সব বছরে বিয়ে করেছেন তিনি। প্রতিবছর কমপক্ষে একটি করে বিয়ে করেছেন সালাহ আল-সায়েরি। বৃদ্ধ হওয়া পর্যন্ত তার সর্বমোট বিয়ের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৮ টি। এখন সবার নাম মনে করতে পারেন না এই ব্যক্তি। ইসলাম ধর্ম অনুযায়ী একসঙ্গে চার জনের বেশি স্ত্রী রাখার অনুমতি নেই কোনো পুরুষের জন্য। তবে ধর্ম এবং দেশের আইন ফাঁকি দেওয়ার জন্য অদ্ভুত এক কৌশল অবলম্বণ করেছেন সালাহ আল-সায়েরি। তিনি একসঙ্গে কখনোই চার জনের বেশি স্ত্রী রাখেননি। সব সময় ঠিক চারজন স্ত্রী থাকত তার। কিন্তু কিছুদিন পরপর তিন জন স্ত্রী রেখে একজনকে ডিভোর্স দিয়ে দিতেন এই ব্যবসায়ী।

তারপর অন্য কাউকে বিয়ে করতেন নতুন করে। এভাবে এক এক করে ৫৮ টি বিয়ের রেকর্ড সম্পন্ন করেন এই ব্যবসায়ী। এত জন স্ত্রীর সঙ্গে সংসার করে ৩০ টির বেশি সন্তানের পিতা হয়েছেন এই ব্যক্তি। তবে ছেলে- মেয়ের সংখ্যা ও তার নিজেরও জানা নেই নিশ্চিতভাবে। এমনকি সবার নাম মনে করতে পারেন না একসঙ্গে। আরব ব্যবসায়ীর এমন অদ্ভুত রেকর্ড এর খবর ফলাও করে প্রচার হয়েছিল বিভিন্ন গণমাধ্যমে। এতগুলো বিয়ের খরচ এবং মোহরানা পরিশোধ করার জন্য প্রায় ১৬ লাখ মার্কিন ডলার খরচ করতে হয়েছে তার। যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ১৫ কোটি টাকারও বেশি। তবে বিয়ের পেছনে এত খরচ বড় কোনো ব্যাপার ছিল না এই ব্যবসার জন্য। গাড়ির ব্যবসার মাধ্যমে মোটা অংকের টাকা উপার্জন করতেন তিনি। স্ত্রীদের মাঝে যাতে কোনো ঝগড়া সৃষ্টি না হয় সেদিকেও লক্ষ্য রাখতেন তিনি। এই কারণে চারজন স্ত্রীর প্রত্যেককে আলাদা আলাদা বাড়িতে রাখতে এই ব্যবসায়ী। সালাহ আল-সায়েরি যেসব স্ত্রীকে ডিভোর্স দিয়েছেন তাদের প্রায় সবারই নতুন করে বিয়ে হয়েছে অন্যত্র। এর ফলে তৈরি হয়েছে অদ্ভুত এক সমস্যা। তার ৫৮ জন স্ত্রী এবং তার অন্য সংসারের কারণে সামাজিক সমস্যায় পড়েছেন সবাই।

সব স্ত্রীর সংসারে জন্ম নেয়া সন্তান এরা পরস্পর ভাই বোন হলেও পরিচয় নেই সবার মধ্যে। একবার তার দুই ছেলেমেয়ে ভর্তি হয়েছিল একই স্কুলে। তারপর বেশ কিছুদিন একসঙ্গে পড়াশোনার পর এক পর্যায়ে জানতে পেরেছিল সম্পর্কে আসলে ভাই-বোন তারা। তাদের দুইজনের পিতার নামই সালাহ আল-সায়েরি। সবচেয়ে মজার ব্যাপার হচ্ছে ৫৮ টি বিয়ে করা এই ব্যক্তিকে জোরকরে বিয়ে দেওয়া হয়েছিল প্রথমবার। তখন তার বয়স ছিল মাত্র ১৪। এরপর প্রতিবছর কমপক্ষে একটি করে বিয়ে করেছেন এই ব্যক্তি। ৫৮টি বিয়ের জন্য তার সর্ব মোট সময় লেগেছে ৫০ বছর। এতগুলো বিয়ে করেও কোনো বিরক্তি আসেনি তার মধ্যে। গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দেয়ার সময় নিজেকে পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী মানুষ হিসেবে দাবি করেছিলেন সালাহ আল-সায়েরি।

উল্লেখ্য, বিয়ে করে জীনের রেকর্ড করেছেন একজন আরব ব্যাবসায়ী। তিনি তার বিবাহিত জীবনে সর্বমোট ৫৮ বিয়ে করেছেন। তার এই ৫৮টি বিয়ে করতে প্রায় সময় লেগেছে ৫০ বছর। তিনি তার ১৪ বছর বয়সেই প্রথম বিয়ে করেন। তবে মজার বিষয় হলো এই আলোচিত ব্যাক্তিকে তার প্রথম বিয়ে দিয়েছিল তার পরিবার জোর করে। তার পর থেকেই তিনি সেচ্ছায় প্রতি বছর কম করে হলেও ১ বিয়ে করতেন।

 

সূত্র: দ্য স্যাটেল টাইমস

About Syful Islam

Check Also

মার্কিন প্রতিনিধিদলের মাধ্যমে বাংলাদেশকে যেসব বার্তা দিল যুক্তরাষ্ট্র

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর প্রথমবারের মতো ঢাকা সফর করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উচ্চপর্যায়ের একটি প্রতিনিধিদল। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *