Monday , March 4 2024
Breaking News
Home / Entertainment / বয়সে ছোট তৃতীয় স্বামীকে নিয়ে কোন দেশে হানিমুনে গেলেন পূর্ণিমা

বয়সে ছোট তৃতীয় স্বামীকে নিয়ে কোন দেশে হানিমুনে গেলেন পূর্ণিমা

বাংলা চলচ্চিত্রের আলোচিত নায়িকা পূর্ণিমা। আলোচিত এই অভিনেত্রী অভিনয় ক্যারিয়ারে দীর্ঘ দিন ধরেই আধিপাত্য বিস্তার করে রয়েছেন বাংলা চলচ্চিত্রে। বিভিন্ন কর্মকান্ডের মাধ্যমে তিনি প্রায় আলোচনায় এসে থাকেন। সম্প্রতি আবারও বিয়ের পিড়িতে বসে আলোচনায় আসেন আলোচিত এই নায়িকা। হানিমুনে প্রসঙ্গে যা জানাগেল আলোচিত এই অভিনেত্রীর।

জুলাইয়ের মাঝামাঝিতে হুট করে খবর, ফের বিয়ে করেছেন চিত্রনায়িকা দিলারা হানিফ পূর্ণিমা। বহুজাতিক একটি কোম্পানির মার্কেটিং বিভাগের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা আশফাকুর রহমান রবিনের সঙ্গে গত ২৭ মে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন। এই খবর নায়িকা জানিয়েছেন দুই মাস পর।

বর্তমানে হানিমুনে ব্যস্ত এই অভিনেত্রী। পূর্ণিমার পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ২৮ জুলাই ব্যাংককে উড়াল দিয়েছেন। ব্যাংকক, পাতায়া এবং ফুকেটে ঘুরছেন। সপ্তাহব্যাপী এই হানিমুন ভ্রমণ শেষে দু-একদিনের মধ্যে ঢাকায় ফিরবেন তিনি।

জানা গেছে, এটি তার তৃতীয় বিয়ে। ৬ সেপ্টেম্বর, ২০০৫ সালে, তিনি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোস্তাক কিবরিয়ার সঙ্গে প্রথম বার বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। সেই সংসারের ইতি টানেন ১৫ মে, ২০০৭ সালে। পরে পূর্ণিমা ওই বছরের ৪ নভেম্বর পারিবারিকভাবে আহমেদ জামাল ফাহাদকে বিয়ে করেন।

২৭ মে বিয়ে নিয়ে পূর্ণিমা বলেন, “তিন বছরের বন্ধুত্ব আমাদের। উভয় পরিবারই আমাদের মতামতকে গুরুত্ব দেয়। পারিবারিকভাবে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে।

জানা গেছে, পূর্ণিমার বর্তমান স্বামী আশফাকুর রহমান রবিন পেশায় দেশের একটি বহুজাতিক কোম্পানির মার্কেটিং বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। সিডনির একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করেছেন। সেখানে থেকে উচ্চতর ডিগ্রি নিয়েছেন। বিয়ের পর রাজধানীর একটি অভিজাত এলাকায় একসঙ্গে বসবাস করছেন তারা।

প্রসঙ্গত, বিয়ের পর এখন হানিমুন নিয়ে ব্যস্ত সময় পারছেন আলোচিত অভিনেত্রী। যদিও আবারও বিয়ের কারনে তিনি এ বিষয়ে নিয়ে বেশ সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন।

About Babu

Check Also

গুরুত্বর অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে অভিনেত্রী মৌসুমী

উপস্থাপিকা মৌসুমী মৌ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তিনি নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর জানিয়েছেন। মৌ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *