Tuesday , February 27 2024
Breaking News
Home / National / বাংলাদেশ বিমানে ভারত যাত্রীর ভিন্ন আবদার, না পেয়ে মাঝ আকাশেই হইচই

বাংলাদেশ বিমানে ভারত যাত্রীর ভিন্ন আবদার, না পেয়ে মাঝ আকাশেই হইচই

বর্তমান আধুনিক যুগে দ্রুত ও নিরাপদ যাতায়াতের ক্ষেত্রে আকাশ পথের কোনো বিকল্প দেখছেন না যাত্রীরা। এখন চোখের নিমিশেই এক দেশ থেকে অন্য দেশে পাড়ি জমাতে পারছেন সকেলই। তবে সম্প্রতি বিমানভ্রমণ কালে ভিন্ন এক আবদার করে রীতিমতো আলোচনায় এসেছেন এক বিমান যাত্রী।

জানা যায়, গত ২৮ জুলাই কানাডার টরন্টো থেকে ঢাকাগামী বিমানের ফ্লাইটে এক যাত্রীর ”ম’দ” চাওয়া নিয়ে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি হয়। একই ঘটনা ঘটেছে ঢাকা থেকে টরন্টোগামী ফ্লাইটে। এই ফ্লাইটে ভারত ও নেপালের যাত্রী থাকায় তারা কেবিন ক্রুদের কাছে ‘ম”দ চেয়েছিল। তখন ”ম’দ” না পেয়ে আওয়াজ তোলেন। এক পর্যায়ে ক্রুরা ‘’ম’দ’’ সরবরাহের জন্য যাত্রীদের চাহিদা সম্পর্কে এয়ারলাইন কর্তৃপক্ষকে জানানোর আশ্বাস দেন।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একজন কর্মকর্তা বলেন, দক্ষিণ এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যের প্রায় সব ফ্লাইটেই ”ম’দ” পরিবেশন করা হয়। কিন্তু বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে তা নিষিদ্ধ। যাত্রীদের চাহিদা বিবেচনা করে ”ম’দ” সরবরাহের বিষয়টি এয়ারলাইন্সের পরবর্তী বোর্ড মিটিংয়ে তোলা হবে। সেখান থেকে সিদ্ধান্ত এলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. জাহিদ হোসেন বলেন, টরন্টো রুটে ভালো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। আমরা ভারত ও নেপাল থেকে যাত্রী পেয়েছি। তারা নিজ দেশ থেকে ঢাকা থেকে টরন্টো যাওয়ার ফ্লাইটের টিকিট বুক করেন। এটা খুবই ভালো লক্ষণ।

এর আগে গত বুধবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রথম বাণিজ্যিক ফ্লাইট কানাডার টরন্টোর উদ্দেশে ছেড়ে যায়। ঢাকা থেকে টরন্টো ফ্লাইটটি লেওভারে সাড়ে ১৯ ঘন্টা সময় নেয়। ফ্লাইটটি ১৭ ঘন্টা আকাশে ছিল।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের বদৌলতে সারাবিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলছে বাংলাদেশও। আর এরই ধারাবাহিকতায় বর্তমানে বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাড়িয়েছে বাংলাদেশ।

About Rasel Khalifa

Check Also

বাবা সৌদি প্রবাসী, ১৯ বছর বয়সে প্রতারণার হাতেখড়ি তার

নওশীন তাবাসসুম। বয়স 22 বছর। পরিবারটি চট্টগ্রামের কর্ণফুলীর হালিশহরে থাকে। তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত একটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *