Sunday , March 3 2024
Home / Countrywide / বিয়ের দাবিতে নবম শ্রেণির ছাত্রের বাড়িতে লঙ্কাকান্ড বাধালেন ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী

বিয়ের দাবিতে নবম শ্রেণির ছাত্রের বাড়িতে লঙ্কাকান্ড বাধালেন ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী

প্রেম-ভালোবাসা জেরে অনেকেই ঘর ছেড়েছেন। এই প্রেম ভালোবাসা এমন একটি জিনিস যেটা জাতি-ধর্ম বয়সের কোনো ভেদ মানে না। নিজের প্রেমিক-প্রেমিকাকে জীবন সঙ্গীকে হিসেবে পেতে যেকোনো ধরনের কান্ড ঘটাতেও পিছপা হন না তারা।

সাম্প্রতিক টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে প্রেমিকের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অনশন করছেন সপ্তম শ্রেণির এক কিশোরী। শনিবার (৩০ জুলাই) থেকে অনশনে থাকা ওই কিশোরী তাকে দেখতে আসা লোকজনকে তার দাবিগুলো ব্যাখ্যা করে।

এদিকে অনশনের শুরুতে পরিস্থিতি খারাপ হতে দেখে কিশোরীর প্রেমিক বাড়ি ছেড়ে গা ঢাকা দেয়।

গোটা এলাকায় এমন ঘটনা ঘটেছে। কিশোরী প্রেমের এই গল্প নিয়ে সবাই কথা বলছেন। তবে একটি প্রভাবশালী মহল বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

অনশনকারী ওই ছাত্রী জানান, দেড় বছর আগে ওই ছাত্রী তাকে প্রস্তাব দেওয়া শুরু করে। এক পর্যায়ে তাদের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। অভিভাবকের চোখের আড়ালে একান্তে একাধিকবার দেখা হয়েছে তাদের। ছাত্রটি এতদিন সংগ্রাম করে আসছে। তাই বিয়ের দাবিতে ছাত্রীর বাড়িতে অনশন করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

মেয়েটির বাবা বলেন, আমরা গরিব মানুষ। এর সুষ্ঠু সমাধান চাই। ছাত্রের বাবা বলেন, আমার ছেলে বাড়িতে নেই। ছেলে বাড়িতে এলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্থানীয় পুরোহিত মিল্টন মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে তিনি এখনো কিছু জানেন না।

তবে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান কাউসার আহমেদ বলেন, ঘটনাটি জেনেছি। সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

ধনবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. চান মিয়া জানান, বিষয়টি গণমাধ্যমকর্মীরা জানিয়েছেন। কেউ অভিযোগ করেনি।

যে বয়সে খেলা বাটি নিয়ে বান্ধবীদের সাথে ঝগড়া বাধানোর কথা। সে বয়সে প্রেম নিয়ে গবেষণা করছে আজকের সমাজের উটতি বয়সী তরুণ তরূনীরা। আজকের এই ঘটনা অনেকটাই অনাকাঙ্ক্ষিত। সময় বদলাছে তার স্পষ্ট ধারণা পাচ্ছে সবাই, এমনই মন্তব্য করেছেন এলাকাবাসী

About Nasimul Islam

Check Also

আর চাঁদ রাতে দেখা হবে নারে দোলা: নাদিয়া

রাজধানীর বেইলি রোডে বহুতল ভবনে অগ্নিকাণ্ডে বান্ধবী দোলা ও তার বোনকে হারিয়েছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *