Thursday , February 22 2024
Breaking News
Home / Countrywide / প্রেম করে বিয়ে করে মেহেদি রং উঠার আগের পালিয়ে গেলেন বর, জানা গেল বিশেষ এক কারণ

প্রেম করে বিয়ে করে মেহেদি রং উঠার আগের পালিয়ে গেলেন বর, জানা গেল বিশেষ এক কারণ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অর্থাৎ সোশ্যাল মিডিয়া। এই প্লাট ফর্মে প্রেম করে প্রতারিত হয়েছেন এমন লোকের সংখ্যা কম নয়। অনেকেই সময় কাটানোর জন্য সোশ্যাল মিডিয় ব্যবহার করে থাকেন, তবে সেখানে কিছু প্রতারক চক্র ওত পেতে বসে থাকে কিভাবে মানুষের সাথে প্রতারণা করা যায়। আটতে থাকে বিভিন্ন রকমের চক/কৌশল। সম্প্রতি সেই ফাঁদে পা দিয়ে ফেলল ১৫ বছরের যুবক।

ঘটনা সুত্রে জানা যায়, দুই সন্তানের জননী ১৫ বছর বয়সী এক ছাত্রকে বিয়ে করেছিলেন যে নিজেকে অবিবাহিত দাবি করে ফেসবুকে সম্পর্ক শুরু করেছিল।

ঘটনাটি ঘটেছে গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার থাপেরহাট ইউনিয়নের হাসানপাড়া গ্রামে।

কনে মৌসুমী আক্তার (২৩) হাসানপাড়া গ্রামের মাহির উদ্দিনের মেয়ে এবং বর রংপুরের পীরগাছা উপজেলার পাওটানা হাট গিরিগিরি গ্রামের ফারুক মন্ডলের ছেলে সোহেল (১৫) নবম শ্রেণির ছাত্রী।

অসম বিয়ের ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। নবদম্পতির এক ঝলক দেখতে মহিলার বাড়িতে উদ্বিগ্ন ভিড় ভিড় করে৷

স্থানীয়রা জানান, দুই সন্তানের জননী মৌসুমী তার স্বামীর সঙ্গে সঙ্গম করেননি। এ কারণে তিনি বেশ কয়েকদিন বাবার বাড়িতে অবস্থান করেন। এরই মধ্যে পীরগাছা উপজেলার গিরিগিরি গ্রামের ফারুক মন্ডলের ছেলের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। মৌসুমী নিজেকে অবিবাহিত দাবি করে ওই কিশোরীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান।

এ সম্পর্কের সূত্র ধরে গত বৃহস্পতিবার কিশোরী প্রেমিক তার প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে সাদুল্লাপুরে আসে।

এরপর সন্তানটিকে নিয়ে স্থানীয় এক কাজীর বাড়িতে গিয়ে আগের স্বামীকে তালাক দেন মৌসুমী। একই সময়ে এক কিশোরী প্রেমিকাকে বিয়ে করেন। বিয়ে রেজিস্ট্রেশনের পর রাতে বর মহিলার বাড়িতে এসে দেখেন মৌসুমীর দুটি সন্তান রয়েছে। পরে সে পালানোর চেষ্টা করে। কিন্তু এলাকাবাসী তাকে বাধা দেয় এবং সালিশের মাধ্যমে বিয়ে দেয়।

ধাপেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম মিন্টু বলেন, অসুস্থতার কারণে ঢাকায় অবস্থান করছি। তবে মানুষের কাছে বিয়ের কথা শুনেছি। সালিশে ইউপির কোনো সদস্যকে তলব করা হয়নি।

এর আগেও অনেকবার সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ধরনের ঘটনা ঘটেছে। তবে এর প্রতিকার কি সে বিষয়ে নিশ্চিত ভাবে কোন পরামর্শ দিতে পারছে না কেউই। তবে পুলিশ সতর্ক করে জানিয়েছেন, যোগাযোগমাধ্যমে এমন হাজারো অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চলছে, তাই অচেনা কাউকে বন্ধু বানানো এবং কোন কিছু না জেনে শুনে নিজের ব্যক্তিগত তথ্য কাউকে দেওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। নিজেরা সতর্ক থাকলে এই ধরনের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড নির্মূল করা সম্ভব।

About Nasimul Islam

Check Also

এবার মুশতাকের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুললেন তিশার মা

তিশা ও খন্দকার মোশতাক আহমেদের বিয়ে নিয়ে প্রথমবারের মতো মিডিয়ার সামনে এলেন সিনথিয়া ইসলাম তিশার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *