Tuesday , February 27 2024
Breaking News
Home / Countrywide / সাবেক স্বামী শাকিব খানের বিয়ে, ছেলে জয়কে নিয়ে পরিকল্পনার কথা জানালেন অপু বিশ্বাস

সাবেক স্বামী শাকিব খানের বিয়ে, ছেলে জয়কে নিয়ে পরিকল্পনার কথা জানালেন অপু বিশ্বাস

ঢাকাই চলচ্চিত্রের বিউটি কুইন খ্যাত অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস শুধু একজন অভিনেত্রী নন, তিনি প্রযোজক হিসেবে নিজের নাম লিখিয়েছেন। তিনি কয়েক দিন আগে চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য সরকারের তরফ থেকে বেশ মোটা অঙ্কের অনুদান পেয়েছেন। অনুদানের অর্থ দিয়ে তিনি দেশ ও মাটি নিয়ে একটি সিনেমা নির্মাণ করতে যাচ্ছেন। সিনেমাটির নাম ‘লাল শাড়ি’। নির্মাতা হতে পেরে উচ্ছ্বসিত অপুর অনুভূতির সাত সতেরো তার সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে তুলে ধরা হলো-

অভিনেত্রী থেকে নির্মাতা অনুভূতি কেমন?

এ ক্ষেত্রে আমি নিজেকে অনেক ভাগ্যবান মনে করি। কারণ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে এ ক্ষেত্রে উপযুক্ত মনে করেছেন এবং চলচ্চিত্রের মতো একটি বড় মিডিয়ার সঙ্গে সরকারি সহযোগিতার পাশে বেঁধেছেন। আমি তার কাছে চিরকৃতজ্ঞ। তার আশীর্বাদে নির্মাণে আমার প্রথম অভিযান শুরু করতে যাচ্ছি।

অনেকেই বলছেন, ছবিটি করতে অপুর সরকারি অনুদানের প্রয়োজন ছিল না, নিজের অর্থেই হতো, কী বলবেন?

এটা সত্য নয়, আমি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির দীর্ঘদিনের পরীক্ষিত একজন দর্শক গ্রহণযোগ্য শিল্পী।। আমার দীর্ঘ অভিনয় জীবনে আমি এই শিল্পকে কমবেশি ভালো কাজ দেওয়ার চেষ্টা করেছি এবং সফল হয়েছি। তাই সরকারের প্রতি আমার একটু বাধ্যবাধকতা আছে। সরকারি টাকায় যখন একটি চলচ্চিত্র নির্মিত হয়, তখন সেই ছবির গল্পে একটি ভিন্নতা থাকে। দেশের মাটির গন্ধ থাকে। নির্মাতার দেশের প্রতি দায়িত্ববোধ রয়েছে। এমন অনেক চিন্তা মাথায় নিয়ে সরকারি অনুদানের জন্য আবেদন করলাম।

অভিনয়ে সফল হলেন, তো প্রযোজনায় কেমন মুন্সিয়ানা দেখাতে পারবেন বলে মনে করেন?

একটি চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য অনুদান পাওয়া মানে আরও কাজের প্রতি উৎসাহ বেড়ে যাওয়া, আরও অনুপ্রাণিত হওয়া। এখন একজন প্রযোজক হিসেবে আমি নিজেকে বলবো, ‘দেশ তোমাকে একটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দিয়েছে, এই দায়িত্ব পালনে তোমাকে অবশ্যই আপনার শতভাগ নিষ্ঠার বাস্তবায়ন করতে হবে।’ আসলে এই আসলে এই বোধ থেকে যত্ন নিয়ে দেশের জন্য একটি সমৃদ্ধ কাজ উপহার দিতে চাই।

নিজেকে এখন প্রযোজক বা নির্মাতা ভাবার চেয়ে, আমার উপর অর্পিত দায়িত্ব অনেক বড় হয়ে গেছে। চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য সরকারের দেওয়া অর্থ দিয়ে আমি দেশকে জনগণের সামনে দেখাতে চাই। এটি আমার জন্য একটি বিশাল চ্যালেঞ্জ। মানসম্মত কাজ দিয়ে সেই চ্যালেঞ্জ জিততে চাই।

ছবির নাম ‘লাল শাড়ি’ কেন?

আমি এখনই বলতে চাই না এর মানে কী। কারণ আমি জানি অপেক্ষায় মায়া বাড়ে, প্রেমে পূর্ণতা আসে, তাই আমার প্রিয় দর্শকদের কাছে আমার ছবির গল্পের বিষয়টি সাসপেন্স হিসেবে রাখতে চাই। এটা অবশ্যই আমার ছবির প্রতি তাদের প্রশংসা ও ভালোবাসা বাড়িয়ে দেবে।

কবে থেকে শুরু হচ্ছে ছবির নির্মাণ কাজ?

এ বছরই শুটিং শুরু করবো। এখন প্রি-প্রোডাকশনের কাজ নিয়ে ব্যস্ত ছবির পরিচালক বাঁধন বিশ্বাস। চলতি বছরেই ছবিটির নির্মাণ কাজ শেষ করার পরিকল্পনা রয়েছে।

এখন আরেকটি বিষয়, জীবনের আগামী দিনগুলোকে কীভাবে সাজাতে চান?

সব পরিস্থিতিতে আমাকে ভালো রাখার জন্য আমি ঈশ্বরের কাছে কৃতজ্ঞ। আমি এখন এবং ভবিষ্যতে তিনটি কাজ নিয়েই ব্যস্ত থাকতে চাই। এই তিনটি কাজ হলো জিমে গিয়ে নিজের শরীরের ফিটনেস ঠিক রাখা, আদরের একমাত্র ছেলের সঠিক যত্ন নেওয়া এবং তাকে একজন আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা, অভিনয় ও নির্মাণে দেশ এবং জাতিকে সমৃদ্ধ কাজ উপহার দেওয়া।

আপনার প্রাক্তন স্বামী অভিনেতা শাকিব খান আগামী বছর বিয়ে করবেন বলে জানিয়েছেন, এ নিয়ে আপনার অনুভূতি কী?

ঠিক আছে, এটি অবশ্যই সুসংবাদ, সে বিয়ে করবে এবং আমরা সবাই তার বিয়ের আনন্দ নিয়ে মেতে উঠব। এটাই সেটা যেটা আমি চাই। শাকিবের বিয়েতে আমি আর জয় মহাআনন্দ করব।

শাকিব তো বিয়ে করবে আর আপনার বিয়ে?

আমিও করব, জীবন আর নিঃসঙ্গভাবে চলবে না। তবে এখন নয়, আমার অনেক কাজ আছে, সব দায়িত্ব শেষ করে একজন আদর্শ ও যত্নশীল মানুষ খুঁজে তার গলায় ভালোবাসার মালা পরাতে চাই। সুখ শান্তির বন্ধনে আবদ্ধ থাকতে চাই চিরকাল। আসলে জীবন একটা যন্ত্র-

যতক্ষণ নড়াচড়া করবে, বুঝবে তার জীবন আছে। থেমে গেলেই বুঝবে প্রয়াত হয়েছে। আমি জীবন-যন্ত্রটাকে সহজে নিথর করে দিতে চাই না।

উল্লেখ্য, অপু বিশ্বাস এবং শাকিব খানের বিবাহ বিচ্ছেদের পর তারা দু’জন আলাদা হয়ে যান। তবে তাদের ছেলে জয় রয়েছেন তার মায়ের নিকটে। জয়কে নিয়ে অপু বিশ্বাস বড় ধরনের আশার কথা জানালেন। এদিকে সবকিছুকে ছাপিয়ে বিশ্বাস কাজের দিকে মনোনিবেশ দিচ্ছেন তিনি।

About bisso Jit

Check Also

স্বামীকে ‘দুলাভাই’ পরিচয় দেওয়া সেই যুবলীগ নেত্রী রিমান্ডে

জালিয়াতির মাধ্যমে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে পাবনা জেলা যুব মহিলা লীগের সদস্য মিম খাতুন ওরফে আফসানা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *