Wednesday , February 21 2024
Breaking News
Home / Exclusive / শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন নিয়ে মুখ খুললো ভারত

শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন নিয়ে মুখ খুললো ভারত

বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচন আগামী বছরের প্রথম দিকেই সম্পন্ন করার আশা করছে নির্বাচন কমিশন। কোন ধরনের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি না হলে আগামী বছরের প্রথম দিকে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে পর্যবেক্ষক দেশের মতামত বিষয়ে সাংবাদিকরা বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিদের সাথে কথা বলেছেন। এবার বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে কথা বলেছেন ভারতের ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি।

ভারত গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া এবং জনগণের প্রত্যাশার পক্ষে দাঁড়ালো ভারত। শ্রীলঙ্কার সাম্প্রতিক পরিস্থিতি এবং বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় নির্বাচন নিয়ে প্রশ্নের জবাবে অরিন্দম বাগচি শনিবার নয়াদিল্লিতে সফররত বাংলাদেশি সাংবাদিকদের একটি প্রতিনিধি দলকে এ কথা জানান।

বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে ‘অনন্য’ উল্লেখ করে মুখপাত্র বলেন, গত বছর ভারতের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ সফর করেছিলেন। দুই দেশ একসঙ্গে বিশ্বের ১৮টি দেশে মৈত্রী দিবস উদযাপন করেছে।

এছাড়া দুই দেশ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী, স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করেছে। এগুলো অনন্য দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক এবং এর মাত্রার প্রতিফলন।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, গত এক দশকে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের ব্যাপক পরিবর্তন ও অগ্রগতি হয়েছে। ২০ বছর আগেও এমন ছিল না। ইনভেস্টমেন্ট, কানেক্টিভিটি (যোগাযোগ), বাণিজ্য, সাধারণ মানুষের সাথে মানুষের যোগাযোগ অনেক বেশি। ভারত সরকার বাংলাদেশসহ সব দেশের সঙ্গে ‘সংযোগ’ বাড়ানোর ওপর জোর দিতে চায়।

মুখপাত্র বলেন, ভারত বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক অগ্রগতি, অর্থনৈতিক অগ্রগতি, গণতন্ত্র, সমাজে সম্প্রীতির প্রশংসা করে। মাথাপিছু জিডিপিসহ অনেক ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সাফল্যের গল্প। গত কয়েক মাসে মানুষের চলাচল বেড়েছে। ভারতের উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলোতে বাংলাদেশ গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার হয়ে উঠেছে।

বাংলাদেশের আসন্ন নির্বাচন নিয়ে ভারতের অবস্থান সম্পর্কে এক প্রশ্নের জবাবে মুখপাত্র বলেন, বর্তমান সরকারের ব্যাপক জনসমর্থন রয়েছে। তারা সম্ভবত ‘ফ্রন্টরানার’। কিন্তু নির্বাচন তো নির্বাচন। তিনি বলেন, নির্বাচনের ফলাফল যাই হোক না কেন, শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের প্রতিবেশী অনেক দেশেই এটা নেই।’

মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা চাই গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া থাকুক। আমরা সবসময় এটিকে সমর্থন করি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ইস্যুটি বাংলাদেশ। আমরা চাই না কেউ আমাদের দেশ সম্পর্কে কিছু বলুক। আমরা অন্য দেশের বিষয়েও কথা বলতে চাই না।’

তিনি বলেন, “আমরা বলছি যে বাংলাদেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর আমলে দুই দেশের (বাংলাদেশ-ভারত) সম্পর্ক গভীর হয়েছে। এটা পারস্পরিক স্বার্থে হয়েছে।’

বর্তমান সময়ে শ্রীলঙ্কায় যে অর্থনৈতিক মন্দা পরিস্থিতি বিরাজ করছে, সে বিষয় নিয়ে ভারত কোন অবস্থানে রয়েছে সে সম্পর্কে মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেছেন, ‘আমরা শ্রীলংকার পরিস্থিতি দেখছি। ভারত যতটুকু সম্ভব তাদের সহায়তা করছে। দেশটির পরিস্থিতি স্বাভাবিক হোক সেটাই আমাদের চাওয়া। শ্রীলংকার বর্তমান পরিস্থিতি সুন্দরভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন দেশটির নতুন গঠিত সরকার, সে বিষয়েও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

About bisso Jit

Check Also

মিয়ানমার থেকে ভেসে এলো বাংলাদেশির মরদেহ

বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তের টেকনাফ অঞ্চল এখনো গুলি ও মর্টার শেলের বিকট শব্দে কাঁপছে। এদিকে পুলিশ বিবিসিকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *