Monday , March 4 2024
Breaking News
Home / Countrywide / সিইসিকে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত হঠাৎ করেই জানালেন কঠোর সতর্ক বার্তা

সিইসিকে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত হঠাৎ করেই জানালেন কঠোর সতর্ক বার্তা

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচন নিয়ে দেশ থেকে শুরু করে বিদেশের রাষ্ট্রপ্রধানরাও নজরদারীর আওতায় রেখেছেন। বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতরা বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে তাদের নিজ নিজ মতবাদ প্রকাশ করছেন। সম্প্রতি জানা গেছে ইসির সঙ্গে (ওইসিডি) ভুক্ত ১৪টি দেশের কূটনীতিকরা বৈথিক করেন। বৈঠকে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি চুয়ার্ড বলেন আমাদের সদস্য দেশগুলো নির্বাচন কমিশনকে যেকোনো প্রকার সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত।

গতকাল আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে অর্গানাইজেশন ফর ইকোনমিক কো-অপারেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের (ওইসিডি) সঙ্গে যুক্ত ১৪টি দেশের কূটনীতিকরা ইসির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। বৈঠক শেষে প্রতিনিধি দলের সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি চুয়ার্ড বলেন, নাগরিকদের ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে, গণতন্ত্রকে আরও কার্যকর ও শক্তিশালী করতে আমাদের সদস্য দেশগুলো নির্বাচন কমিশনকে যেকোনো ধরনের সহায়তা দিতে প্রস্তুত রয়েছে। এবং গণমাধ্যম ও সুশীল সমাজের কার্যকর ভূমিকা নিশ্চিত করা।

বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস, ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিক্সন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত চার্লস হুইটলি এবং কানাডার হাইকমিশনার লিলি নিকোলস উপস্থিত ছিলেন। তিনি বলেন, আগামী বছর অবাধ, সুষ্ঠু ও অন্তর্ভুক্তিমূলক নির্বাচন নিশ্চিত করতে কী কী পদক্ষেপ নেওয়া হবে তা নিয়ে আলোচনা করতে তারা নির্বাচন কমিশনে বৈঠক করেছেন। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এসবের ওপর নজর রাখছে বলেও নিশ্চিত করেছেন তিনি।

তার অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে, হাই কমিশনার লিলি নিকোলস লিখেছেন:

“২০২৩ সালে অবাধ, সুষ্ঠু ও অন্তর্ভুক্তিমূলক নির্বাচন নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ কী পদক্ষেপ নেবে তা নিয়ে আলোচনা করতে ১৪ রাষ্ট্রদূত এবং হাইকমিশনার বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশনের সাথে বৈঠক করেছেন। স্পষ্টতই, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় দেখছে!”

টুইটের শেষে কানাডার হাইকমিশনার হ্যাশট্যাগে গণতন্ত্র, স্বচ্ছতা এবং অন্তর্ভুক্তি শব্দগুলো ব্যবহার করেছেন। এদিকে, বৈঠকে উপস্থিত থাকা বাংলাদেশে নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূত অ্যানি গিয়ার্ড ভ্যান লিউভেন টুইট করেছেন: “এটি সত্যিই একটি ভাল বৈঠক ছিল। আমি এই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং চ্যালেঞ্জিং কাজের জন্য সিইসির সাফল্য কামনা করি!”

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ একটি স্বাধীন রাষ্ট্র। আর এই স্বাধীন রাষ্ট্রের নির্বাচন হওয়া উচিত প্রত্যেকবারের মত সুষ্ঠ ও গ্রহণযোগ্য। বাংলাদেশের নির্বাচনের প্রতি সবারই একটি প্রখর নজর রয়েছে। দেশের জনগন তাদের পছন্দ অনুযায়ী নির্বাচনে ভোট দিয়ে যোগ্য ব্যক্তিকেই নির্বাচনে জয়ী করে থাকেন।

About Shafique Hasan

Check Also

হঠাৎ উপজেলা নির্বাচন নিয়ে নতুন সুর বিএনপির

আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে না বলে জানিয়েছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *