Tuesday , February 27 2024
Breaking News
Home / Countrywide / আওয়ামী লীগকে ধরে রাখার পিছনে কারা আছেন শেষ পর্যন্ত জানা গেল সেই খবর

আওয়ামী লীগকে ধরে রাখার পিছনে কারা আছেন শেষ পর্যন্ত জানা গেল সেই খবর

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের গর্ব। বাংলার মানুষের জন্য তার অপরিসীম ভালোবাসা কখনই ভুলে যাবার নয়। তিনি এদেশের মানুষকে যে কতটা ভালোবাসেন সেইটা তিনি প্রত্যেকটি পরতে পরতে দেখিয়ে দিয়েছেন। সম্প্রতি তিনি তার এক বক্তব্যে বলেছেন দেশের তৃণমূল নেতাকর্মীরাই আওয়ামী লীগকে ধরে রেখেছে।

সোমবার (৪ জুলাই) দুপুরে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নে প্রতিটি কাজই অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে হচ্ছে এবং আজ দেশের মানুষ ভালো আছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনার অনেক উন্নত দেশ আছে, যাদের অনেক টাকা আছে; তারাও বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দিতে পারেনি। কিন্তু বাংলাদেশে আমরা বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দিয়েছি। আমরা সবাই মিলে কাজ করছি বলে বন্যাসহ যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে সক্ষম। শেখ হাসিনা বলেন, মানুষের শক্তিই আমার কাছে সবচেয়ে বড় শক্তি, অন্য কোনো শক্তি নয়।

এর আগে সকালে রাজধানীর গণভবন থেকে সড়কপথে পদ্মা সেতু পার হয়ে সাড়ে তিন ঘণ্টায় পরিবারসহ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সে সময় তার সফরসঙ্গী ছিলেন সজিব ওয়াজেদ জয় ও সায়মা ওয়াজেদ পুতুল।
সকাল সোয়া ৯টায় পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে টোল পরিশোধ করেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর তার কনভয় সেতুতে উঠে। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইংয়ের একজন কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ওই কর্মকর্তা জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকাল সোয়া ৯টার দিকে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে টোল পরিশোধ করেন। এরপর তার কনভয় সেতুতে উঠে।

প্রধান সেতুতে ওঠার পর সজিব ওয়াজেদ জয় ও সায়মা ওয়াজেদ পুতুলকে নিয়ে কিছুক্ষণ গাড়ি থেকে নেমে যান প্রধানমন্ত্রী। সেতু পার হয়ে প্রধানমন্ত্রীর কনভয় জাজিরা প্রান্তে এসে কিছুক্ষণ সময় কাটায়। এদিকে মা ও ভাইয়ের সঙ্গে সেলফি তোলেন সায়মা ওয়াজেদ পুতুল। শেখ হাসিনা টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন এবং ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাত করেন। সফর শেষে রাতেই পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ঢাকায় ফিরবেন তিনি।

গত ২৫ জুন দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১টি জেলায় স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যান চলাচলের জন্য বহুল প্রতীক্ষিত পদ্মা বহুমুখী সেতু পার হওয়ার পর প্রথম টোল দিয়ে সেতু পার হন। সেতু উদ্বোধনের পর এটিই তার প্রথম টুঙ্গিপাড়া সফর। প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে কেন্দ্র করে টুঙ্গিপাড়া ও আশপাশের এলাকায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিস্থলে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের তৃণমূল নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগকে ধরে রাখার জন্য বিশেষ ভূমিকা পালন করছেন এমনটাই বললেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। তার মত এমন ভালো হৃদয়ের প্রধানমন্ত্রী আর দ্বিতীয়টি আর বাংলাদেশের মাটিতে আসবে কিনা সন্দেহ আছে

About Shafique Hasan

Check Also

স্বামীকে ‘দুলাভাই’ পরিচয় দেওয়া সেই যুবলীগ নেত্রী রিমান্ডে

জালিয়াতির মাধ্যমে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে পাবনা জেলা যুব মহিলা লীগের সদস্য মিম খাতুন ওরফে আফসানা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *