Monday , June 24 2024
Breaking News
Home / National / থানার ওসি চাইলেই হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা হতে পারেন: বেনজীর আহমেদ

থানার ওসি চাইলেই হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা হতে পারেন: বেনজীর আহমেদ

পু/লি/শ রাষ্ট্রের পরিচালিত একটি বাহিনী। এই বাহিনী রাষ্ট্রের জনগনের জান মালের নিরাপত্তা প্রদান করে থাকে। এমনকি দেশ ও সমাজ থেকে অপরাধ কর্মকান্ড নির্মূলে বিশেষ ভাবে কাজ করে থাকে। তবে প্রায় সময় কিছু অসাধু পু/লি/শ কর্মকর্তাদের জন্য পুরা বাহিনী প্রশ্ন বিদ্ধ হয়ে থাকে। পু/লি/শ চাইলেই সততা এবং নিষ্টার সঙ্গে কাজ করে দেশ ও জাতির উন্নয়নে অগ্রনী ভূমিকা পালন করতে পারে। সম্প্রতি এই বাহিনীর ব্যক্তিদের নিয়ে বেশ কিছু কথা জানালেন ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পু/লি/শ ড. বেনজীর আহমেদ।

প্রতিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চাইলেই হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা হতে পারেন বলে মনে করেন ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পু/লি/শ ড. বেনজীর আহমেদ। তিনি বলেন, মানুষের জন্য কাজ করে তাদের হৃদয় ও মন জয় করা যায়। এটা টাকা দিয়ে কেনা যায় না। শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ঢাকা রেঞ্জের আগস্ট ২০২১ মাসের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে পু/লি/শ/প্রধান এই কথা বলেন। রেঞ্জের ডি/আই/জি হাবিবুর রহমান সভায় সভাপতিত্ব করেন। সমাজকে একটি বহতা নদীর সঙ্গে তুলনা করে আই/জি/পি বলেন, ‘যেহেতু সমাজ পরিবর্তন হয় সেহেতু সমাজ পরিবর্তনের সাথে সাথে আইন-শৃঙ্খলা ও অপরাধ পরিস্থিতি পরিবর্তন হয়।’ তাই সর্বদা সমাজের পরিবর্তনশীল চাহিদার প্রতি লক্ষ্য রেখে পু/লি/শিং কার্যক্রম চালু রাখতে তিনি মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন।

বিট পু/লি/শিং/কে পু/লি/শিং/য়ের একটি কার্যকর পদ্ধতি হিসেবে আখ্যায়িত করে পু/লি/শ/প্র/ধান বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু প্রতিটি ইউনিয়নে থানা করার যে স্বপ্ন দেখেছিলেন মূলত বিট পু/লি/শং সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনী ইশতেহারে ঘোষণা করেছিলেন, প্রতিটি গ্রামে শহরের সুবিধা পৌঁছে দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে প্রতিটি ইউনিয়নে অপরাধ ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় বিট পু/লি/শং কার্যকর অবদান রাখতে পারে।’ তিনি জনগণের মাঝে বিট পু/লি/শিং কার্যক্রম ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য পু/লি/শ কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেন। আই/জি/পি আবারও দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে ঘোষণা করেন, ‘কোনো পু/লি/শ সদস্য কোনো ধরনের অপরাধের সাথে জড়িত থাকলে তাকে তা বন্ধ করতে হবে। পু/লি/শে কোনো অপরাধীর জায়গা নেই। আমরা যতই ভালো কাজ করি না কেন, একটি খারাপ কাজ সব অর্জন নষ্ট করে দেয়।’

জুনিয়রদের যোগ্য করে গড়ে তোলা সিনিয়রদের দায়িত্ব উল্লেখ করে আই/জি/পি বলেন, ‘জুনিয়রদের জন্য ভালো উদাহরণ তৈরি করতে হবে। ভালো কাজে তাদেরকে মোটিভেট করতে হবে। তাদেরকে সুপারভাইজ করতে হবে।’ আই/জি/পি বলেন, ‘চাকরিতে ‘প্যাশন’ আনতে হবে। প্রত্যেক পু/লি/শ সদস্যের সম্মান ও মর্যাদাবোধ থাকতে হবে। পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে।’ আই/জি/পি ঢাকা রেঞ্জের বিভিন্ন ইনোভেশন কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি অন্যান্য ইউনিটেও এ ধরনের ইনোভেশনের চর্চার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। ঢাকা রেঞ্জের ডি/আই/জি হাবিবুর রহমান আগস্ট মাসের সার্বিক অপরাধ পরিস্থিতি, অপরাধ ব্যবস্থাপনা, বেস্ট প্র্যাকটিসেস এবং ইনোভেশন কার্যক্রম সভায় উপস্থাপন করেন। মাদারীপুর জেলা পু/লি/শ আয়োজিত এ সভায় ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডি/আই/জি/গণসহ রেঞ্জাধীন সব জেলার পু/লি/শ সুপার এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন।

বর্তমান সময়ে দেশের পু/লি/শ বাহিনী জনগনের জান মালের নিরাপত্তা সহ সকল ধরনের অপরাধ কর্মকান্ড নিরসনে আপ্রান ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ইতিমাধ্যে বাংলাদেশ সরকারও পু/লি/শ বাহিনীকে আধুনিকরন করতে কাজ করছে। ইতিমধ্যে এই ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকার গ্রহন করেছেন নানা ধরনের পদক্ষেপ।

About

Check Also

জাহ্নবী কাপুরের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

মন্দিরের সিঁড়ির একপাশে অসংখ্য ভাঙা নারিকেল। তার পাশে থেকে হামাগুড়ি দিয়ে উপরে উঠছেন বলিউড অভিনেত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *