Saturday , May 25 2024
Breaking News
Home / International / পুলিশ কমিশনারের মেয়ে পরিচয় দিয়ে বিপাকে তরুণী

পুলিশ কমিশনারের মেয়ে পরিচয় দিয়ে বিপাকে তরুণী

বিভিন্ন সময় দেখা যায় প্রতারণার আশ্রয় নেয়া হয়েছে নিজেদের স্বার্থসিদ্ধির আদায় করে নিজেদেরকে বিভিন্ন পরিচয় দিয়ে এবং আড়াল করতে গিয়ে তারা বিভিন্ন কৌশল রপ্ত করে ঊর্ধ্বতন বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা কিংবা প্রশাসনের লোক অথবা তাদের নিকট আত্মীয় হিসেবে নিজেকে পরিচয় দিয়ে তারা বিভিন্নভাবে প্রতারণা করে এমন ঘটনা ঘটছে হরহামেশাই কোন ভাবে বোঝার উপায় থাকে না যে তারা আসলেই প্রতারক বা তারা সত্যি কথা বলছেন

সোশ্যাল মিডিয়ায় কলকাতা পুলিশ কমিশনারের মেয়ে পরিচয় দিয়ে বিপাকে পড়েছেন এক তরুণী। তার বিরুদ্ধে মামলাও হয়েছে।

ওই তরুণীর নাম সুলগ্না ঘোষ। তার বাড়ি যাদবপুরের বিক্রমগড়ে।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, নেটমাধ্যমে সুলগ্না কখনও পুলিশ কমিশনার, কখনও কলকাতা পুলিশের সার্জেন্ট, কখনওবা সাব ইন্সপেক্টরের মেয়ে বলে পরিচয় দিতেন।

বিষয়টি নজরে আসতেই ওই তরুণীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন তারই এক পরিচিত ব্যক্তি।

জানা গেছে, ইনস্টাগ্রামে পুলিশের পোশাক পরে ছবি দিয়েছিলেন সুলগ্না। সেখানে প্রোফাইলে নিজেকে কলকাতা পুলিশ কমিশনারের মেয়ে বলে উল্লেখ করেন তিনি। সেই ছবি পোস্টও করেছিলেন।

আর তাতেই বিপত্তি। পুলিশ সম্পর্কে নেটমাধ্যমে ভুল বার্তা ছড়াচ্ছে—এমন অভিযোগ তুলে কলকাতা পুলিশে অভিযোগ করা হয় সুলগ্নার বিরুদ্ধে।

তবে সুলগ্নার দাবি— ইউটিউবে ভিডিও বানানোর জন্য তিনি পুলিশের পোশাক ভাড়া করেছিলেন। সেই পোশাক পরেই ছবি আপলোড করেছিলেন।

সুলগ্নার আরও দাবি— কলকাতা পুলিশে কোনো নারী সার্জেন্ট হয় না। তাই তিনি কোনো আইনবিরুদ্ধ কাজ করেননি।

এবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটা বিষয় নিয়ে চলছে ব্যাপক আলোচনায় সেটি হল কলকাতা পুলিশ কমিশনারের মেয়ে পরিচয় দিয়ে বিপাকে পড়েছেন এক তরুণী এবং শুধু তাই নয় তার বিরুদ্ধে মামলাও হয়েছে ওই তরুণী বাড়ি যাদবপুরের বিক্রম করে ভারতের জনপ্রিয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে আলোচিত ওই তরুণী বিভিন্ন সময় বিভিন্ন পরিচয় দিতেন

About

Check Also

এ বছরের সবচেয়ে বড় দুর্ঘটনা: নৌকাডুবিতে ‘‘নিহত অথবা নিখোঁজ’’ ৭০

ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশের উপকূলে নৌকা ডুবির এক ঘটনায় ৭০ জনেরও বেশি রোহিঙ্গা ‌‌‘‘নিহত অথবা নিখোঁজ’’ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *