সাত মাসের সন্তানকে বিক্রি করতে দোকানে এসেছিলেন বাবা। দোকানি তার কথা শুনে এতটাই আশ্চর্য হয়ে গিয়েছিলেন, সেটা থেকে বের হতে পুলিশে খবর দিয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশ এলেও সন্তান বিক্রি করতে চাওয়া সেই বাবাকে আটক করেনি।

ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায়। যে দোকানটিতে ঘটনাটি ঘটে সেটি আসলে একটি বন্ধকী দোকান। অর্থাৎ ফ্লোরিডার জনগণ সেখানে নিজেদের অপ্রয়োজনী কিছু সেখানে বিক্রি করতে বা বন্ধক রেখে টাকা নিতে পারেন। ঠিক তেমনই একটি দোকানে নিজের সাত মাসের সন্তানকে বিক্রি করতে আসেন এক বাবা।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ডেইল মেইল তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ব্রায়ান স্লোকাম নামে এক ব্যক্তি তার সাত মাসের সন্তানকে বিক্রি করতে দোকানটিতে যান। তিনি সন্তানবহন করার ক্যরিয়ারটি দোকানের কাউন্টারে তুলে নেন। পরে দোকানিকে উদ্দেশ করে বলেন, এই ছেলে কোনো কাজে লাগে না, একে বন্ধক রাখলে কত টাকা পাওয়া যেতে পারে?

স্লোকামের এই কথা শুনে আশ্চর্য হয়ে যান দোকান মালিক রিচার্ড জোর্ডান। তিনি স্লোকামকে এমন কাজ করতে মানা করেন। কিন্তু ছেলেকে বিক্রি করবেন বলেই বার বার জোর করছিলেন স্লোকাম। পরে পুলিশে ফোন করেন রিচার্ড। কিন্তু এর মধেই দোকন থেকে বের হয়ে যান স্লোকাম।

দোকানের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ফ্লোরিডা পুলিশ স্লোকামকে আটক করে। কিন্তু পুলিশকে তিনি জানিয়েছেন, মজার ভিডিও বানাতেই দোকানির কাছে ছেলেকে বিক্রি করতে গিয়েছিলেন তিনি।

পুলিশ ছেড়ে দিলেও গোয়েন্দা লাগিয়েছিল তার বাড়ির আশেপাশে। পরে গোয়েন্দা পুলিশকে জানায়, ছেলেকে বেশ যত্মআত্মি করেন ব্রায়ান স্লোকাম। তাই স্লোকামের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।