বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল জামিনে কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগার থেকে তাকে মুক্তি দেয়া হয়।
নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের জেল সুপার সুভাষ ঘোষ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
সন্ধ্যায় ৭টায় কারাগার থেকে বের হওয়ার সময় কারা ফটকে উপস্থিত ছিলেন তার স্ত্রী কামরুন নাহার সৃষ্টি দুই কন্যা জান্নাতুন ইনি সূচনা ও অপরাজিতা খান মিতু সহ দলীয় নেতাকর্মীরা।
নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল আমিন সিকদার বলেন, খবর পেয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে কারাগারের সামনে এসে সোহেল ভাইকে ফুলের শুভেচ্ছা জানিয়েছি।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল কারাগার থেকে বেরিয়ে দ্রুত গাড়িতে উঠে চলে যান। এ সময় দলীয় নেতাকর্মীরাও তাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে যে যার মতো দ্রুত চলে যান। সোহেলের মুক্তির সময় আশপাশে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাউকে দেখা যায়নি।
এদিকে গত ৮ জুলাই যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া ছাড়া সোহেলকে গ্রেফতার ও কোনো প্রকার হয়রানি না করতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।
এক আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মাসুদ রানা।
উল্লেখ্য, গত বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় রাজধানীর গুলশানের গোলচত্বর থেকে হাবিব-উন-নবী খান সোহেলকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ১১২টি মামলা রয়েছে।