করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে বহুল আলোচিত। যতদিন যাচ্ছে করোনার ভয়াবহতা হুহু করে বাড়ছে। করোনা নিয়ে বিশ্বে চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা যত গবেষনা করছে তত উদ্বেগজনক তথ্য জনসম্মুখে আসছে। করোনার তান্ডবে সারা পৃথিবীর মানুষ দিশেহারা। পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোতে সব থেকে বেশি ক্ষতি হয়েছে করোনার ছোঁবলে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছে লক্ষ লক্ষ মানুষ।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display



প্রাণঘাতী করোনায় পুরো বিশ্বে ৩০ লাখের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে কানাডায় আক্রান্ত ৪৫ হাজার এবং দেশটিতে মারা গেছে আড়াই হাজার মানুষ। এর মধ্যে দেশটির কিউবেক প্রদেশেই মারা গেছে ১ হাজার ৪৪৬ জন।

করোনায় কিউবেক শহর মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে বলে জানিয়েছে নার্সদের সংগঠনের সভাপতি নাতালিয়া স্টেক ডসেট।

আল-জাজিরাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে নাতালিয়া জানিয়েছেন, করোনা মোকাবিলায় রোগীদের সেবা দিতে তিনি কিউবেক প্রদেশের মন্ট্রিলে দায়িত্ব পালন করেন। সেখানে ১৮০টি পরিবারের একটি বৃদ্ধাশ্রম গ্রাম আছে।

তিনি জানান, এই শহরে মৃতদের মধ্যে ৬৩ শতাংশ মানুষই বৃদ্ধাশ্রমের বাসিন্দা। তারা নিজেদের ঘরেই মারা গেছে।

বৃদ্ধাশ্রমগুলো করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর তা দ্রুত অন্যদের সংক্রমিত করতে শুরু করে।

এতে মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়তে থাকে। তবে এই বৃদ্ধাশ্রমগুলো কোনো হোটেল বা হোস্টেল নয়। সেখানে শুধু বৃদ্ধরা থাকেন। নাতালিয়া জানান, একটি বৃদ্ধাশ্রমে তারা গিয়ে দেখতে পান সেখানে ৩১ জন মারা গেছেন।

এটি ছিল মার্চের ১৩ তারিখের ঘটনা। আমরা তাদের জন্য কিছু করতে পারিনি। এজন্য আমাদের লজ্জিত হওয়া উচিত। কানাডায় করোনাভাইরাসে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে লিয়ান ভ্যালি কেয়ার হোমে।

যেটি শহরে নর্থ ভ্যাঙ্কুভারে অবস্থিত। এটি অন্টারিও শহরের একটি ছোট্ট এলাকা। কিউবেক প্রদেশে গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ২১ হাজার রোগী শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ৪৪৩ জনের। যারা মারা গেছে তাদের প্রায় সবারই বয়স ৬০ বছরের উপরে।



প্রসঙ্গত, করোনা ভাইরাস সারা বিশ্বে আতঙ্ক সৃষ্টিকারী ভয়াবহ একটি ভাইরাস। এ ভাইরাসের কারণে সারা বিশ্ব যেন মৃত্যুপুরীতে পরিনত হয়েছে। করোনা ভাইরাস অল্প কয়েকদিনে বিশ্ব থেকে তার ভয়ানক ছোঁবলে ২,০৭,১১১ মানুষের প্রাণ গ্রাস করেছে। করোনার ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৩০,০৩,৯৪৪ জন মানুষ। করোনা ভাইরাসে নিয়ে গবেষনায় নতুন নতুন ভয়াবহ তথ্য সারা পৃথিবীর মানুষকে চিন্তিত করেছে।

News Page Below Ad

আরো পড়ুন

Error: No articles to display