সম্প্রতি বাংলাদেশে ঘটে গেছে আবারো একটি নেক্কার জনক ঘটনা। দেশের রাজধানীর কলাবাগানে ঘটে গেছে এই ঘটনাটি। জানা গেছে বন্ধুর বাসায় গিয়ে মাস্টারমাইন্ড স্কুলের ’ও’লেভেলের শিক্ষার্থী আনুশকা নূর আমিনকে কুষ্টিয়ায় পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়েছে। হত্যার বিচারের দাবিতে আনুশকারের বাবা আল আমিন আহম্মেদসহ স্থানীয় লোকজন মানববন্ধন করেছেন। ওই মানববন্ধনে আনুশকারের বাবা দাবি তুলেছেন, এই হত্যার পেছনে আরও কেউ জড়িত রয়েছে কিনা তা বের করে দ্রুত বিচার সম্পন্ন করতে হবে। দিহানকে ’সঠিকভাবে’জিজ্ঞাসাবাদ করলেই জড়িত অন্যদের তথ্য বেরিয়ে আসবে। আজ শনিবার (৯ জানুয়ারি) কমলাপুর বাজারে সড়কের দু’পাশে দাঁড়িয়ে শত শত মানুষ এই মানববন্ধনে অংশ নেন।
অন্যদিকে আনুশকা নূর আমিনের মা বলেন, থানায় মামলা দিতে গেলে দিহানসহ চারজনকে আসামি করার কথা বলা হয়। কিন্তু পুলিশ কেন একজনকে আসামি করল, সেই প্রশ্ন কিশোরীর মায়ের। আর বাবা বলছেন, আমি বারবার বলেছি মেয়ের জন্ম ২০০৩ সালে। পাসপোর্ট দেখিয়ে বলেছি মেয়ের বয়স ১৭। কেন তাকে ১৯ বানানো হলো? আজ শনিবার (০৯ জানুয়ারি) কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় গ্রামের বাড়িতে মেয়ের লাশ দাফন শেষে এভাবেই ক্ষোভের কথা জানান তারা।

আনুশকারের বাবা মোহাম্মদ আলামিন বলেন, থানা-পুলিশকে বলা হয়েছিল, চারজনকেই আসামি করতে। কিন্তু মামলা দুর্বল হয়ে যাবে, এমন কথা বলে পুলিশ একজনকে আসামি করে। কিন্তু পুলিশ কেন এমন করল, তা বুঝতে পারছেন না। চার বন্ধুকেই আইনের আওতায় নেওয়ার দাবি জানান তিনি।

মা-বাবা দুজনই মেয়ের বয়স নিয়ে পুলিশ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাঁদের বিড়ম্বনায় ফেলেছে বলে অভিযোগ করেন। তাঁরা বলেন, তাঁদের মেয়ে ২০০৩ সালে জন্মগ্রহণ করেছে। ’এ’ লেভেলে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য কোচিং করছিল। পাসপোর্ট ও জন্মসনদ অনুযায়ী মেয়ের বয়স ১৭ বছর। মামলা দুর্বল করতে বয়স ১৯ লেখা হয়েছে। পুলিশকে বারবার বলা হয়েছে চারজনকে আসামি করতে। তবু পুলিশ একজনকে আসামি করার কথা জানায়। ঢাকায় ফিরে প্রয়োজন হলে আরও একটি মামলা করবো। কারণ পুলিশ আনুশকারের বয়স কম দেখানো এবং আসামি কম দেখাতে গড়িমসি করছেন বলে অভিযোগ তুলেছেন তারা। শনিবার কুষ্টিয়ায় পারিবারিক কবরস্থানে মেয়েটিকে দাফনের পর মেয়েটির মা-বাবা সাংবাদিকদের কাছে একথা জানান।

পুলিশ বিকাল ৪টার দিকে সুরতহাল প্রতিবেদন করাসহ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। বিকাল ৫টায় ঢাকা মেডিকেলের ফরেনসিক বিভাগ লাশ গ্রহণ করে। মেয়েটির মা বলেন, এসময় সুরতহাল রিপোর্টে উল্লেখ করা বয়স নিয়ে আমরা আপত্তি তুললে পুলিশ ক্ষুব্ধ হয়ে ময়নাতদন্ত ছাড়াই মর্গে লাশ ফেলে রাখে। তিনি তার মেয়ের বয়সের প্রমাণপত্র দেখালেও পুলিশ তা আমল নিচ্ছিল না বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এর আগে, ওই স্কুলছাত্রীকে ধ’/র্ষ’/ণে’/র পর হ’/ত্যা’/র’/ ঘটনায় দিহানকে একমাত্র আসামি করে কলাবাগান থানায় মামলা করেন নি’/হ’/তে’র বাবা আলামিন। এ ঘটনায় হাসপাতাল থেকে দিহানসহ তার তিন বন্ধুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। আজ শনিবার (৯ জানুয়ারি) মুচলেকা নিয়ে পরিবারের জিম্মায় দিয়েছে পুলিশ। ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় তাদের কোনো সম্পৃক্ততা না থাকায় তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিএমপির কলাবাগান জোনের এডিসি এহসানুল ফেরদৌস।

এ দিকে এই ঘটনাটি ইতিমধ্যেই চাঞ্চল্যে সৃষ্টি করেছে সারা দেশে। বিশেষ করে দেশের মধ্যে এই বিষয়টি নিয়ে সকলেই এখন বেশ আলোচনায় মেতে উঠেছেন। এ নিয়ে বাংলাদেশের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ১৬ বছরের নিচে কোনো মেয়ের সম্মতি নিয়ে যৌন সম্পর্ক গড়লেও তা ধর্ষণ বলে বিবেচিত হয়। আবার দেশে ১৮ বছরের নিচের বয়সীরা শিশু হিসেবে আইনিভাবে স্বীকৃত।

News Page Below Ad

আরো পড়ুন

ভাইয়ের পা ধরে মাফ চেয়েও বাঁচতে পারলেন না, স্ত্রীর আহাজারি

27 January, 2021 | Hits:275

সারা দেশে নানা ধরনের সব বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে থাকে অহরহ। আর এ সব ঘটনা অনেক সময়ে মানুষের প্রাণহানীও ঘটে থাকে। সম্প্রতি তেমনই...

আমাকে সবাই কালি-কালি বলে ডাকতো: প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

26 January, 2021 | Hits:106

বলিউডের দাপুটে এক অভিনেত্রীর নাম প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। যিনি দীর্ঘদিন ধরেই সিনেমায় অভিনয় করে যাচ্ছেন। শুধু হিন্দি সিনেমাই নয় ...